শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০১৯
শুক্রবার, ৪ঠা শ্রাবণ ১৪২৬
 
 
পূর্ণিমা অমাবস্যা না অন্য কারণে বাড়ে বাতের ব্যথা-গবেষণা
প্রকাশ: ০৯:২৯ pm ২৭-০৮-২০১৭ হালনাগাদ: ০৯:২৯ pm ২৭-০৮-২০১৭
 
 
 


সাধারণত বলা হয়, অস্থিসন্ধির ব্যথা বা বাতের ব্যথায় প্রভাব ফেলে স্থানীয় আবহাওয়া। যাদের অস্থিসন্ধিতে ব্যথা আছে, ঠান্ডায় বা আর্দ্র আবহাওয়ায় সেই ব্যথা বাড়ে।

এই বিষয় নিয়ে গবেষণা করেছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থোপেডিক্স অ্যান্ড স্পোর্টস মেডিসিন-এর সহযোগী অধ্যাপক ও গবেষক স্কট টেল্ফার এবং ম্যাসাচুসেটস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি-র মিডিয়া ল্যাবের গবেষক নিক অব্রাডোভিস। 

তারা যুক্তরাষ্ট্রের ৪৫টি জনবহুল শহরের বিভিন্ন ব্যথায় আক্রান্ত বাসিন্দারা ভিন্ন ভিন্ন আবহাওয়ায় কোন ধরনের তথ্য ইন্টারনেটে খোঁজেন, তা জানার চেষ্টা করেছেন। তার ভিত্তিতে কোন আবহাওয়ায় কোন ব্যথার প্রকোপ বাড়ে, তা বলার চেষ্টাও করেছেন। গবেষণার ফলাফল, চলতি আগস্ট মাসের ৯ তারিখে প্রকাশিত হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের গবেষক দুই জন বিভিন্ন শহরের স্থানীয় আবহাওয়ার সঙ্গে ইন্টারনেটে হাঁটুর ব্যথা, কোমরের ব্যথা ও বাতের ব্যথার তথ্য খোঁজার প্রবণতা পরীক্ষা করে দেখেছেন। শহরগুলোর পাঁচ বছরের তাপমাত্রা, আপেক্ষিক আর্দ্রতা, বৃষ্টিপাতের তথ্য বিশ্লেষণ করেছেন। তার পর ইন্টারনেটে নাগরিকদের ব্যথার তথ্য খোঁজার প্রবণতার তুলনা করেছেন।

এই গবেষণায় দেখা গেছে, তাপমাত্রা মাইনাস ৫ ডিগ্রি থেকে ৩০ ডিগ্রির মধ্যে থাকলে কোমরের ব্যথার তথ্য খোঁজার সূচক ১২ পয়েন্ট এবং হাঁটুর ব্যথার তথ্য খোঁজার সূচক ১৮ পয়েন্ট বৃদ্ধি পায়। বৃষ্টিপাত বেশি হলে কোমর ও হাঁটুর ব্যথার তথ্য মানুষ কম খোঁজেন। একই ভাবে তাপমাত্রা ৩০ ডিগ্রির উপরে গেলে মানুষ বাতের ব্যথার তথ্য বেশি খোঁজে।

গবেষকেরা বলছেন, অনলাইনে রোগ সম্পর্কে তথ্য খোঁজার অভ্যাসের সঙ্গে জনগোষ্ঠীতে রোগের ধরনের সম্পর্ক আছে। কোন তাপমাত্রায় মানুষ কোন ব্যথা নিয়ে আতঙ্কিত হয়ে পড়ে, এই গবেষণায় তা দেখার চেষ্টা করা হয়েছে।

বিভিন্ন ঋতুতে ও তাপমাত্রায় মানুষের ব্যথার প্রকারভেদের একটি চিত্র পরিষ্কার হলেও, আলাদা করে অমাবস্যা কিংবা পূর্ণিমা তিথির সঙ্গে ব্যথার যোগের কোনও খোঁজ এই গবেষণায় মেলেনি। আদৌ চাঁদের আকার অনুযায়ী ব্যথার পরিমাণ নির্ধারিত হয় কিনা, তা এই গবেষণা থেকে পরিষ্কার ভাবে যানা যায়নি।

/ডিএম

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক : সুকৃতি কুমার মন্ডল 

 খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

+8801711-98 15 52

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71