বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮
বুধবার, ৪ঠা আশ্বিন ১৪২৫
 
 
পৈত্রিক ভিটায় ‘প্রমথ চৌধুরী স্মৃতি পাঠাগার’ উদ্বোধন
প্রকাশ: ০৫:৫৪ pm ২০-০৭-২০১৭ হালনাগাদ: ০৫:৫৪ pm ২০-০৭-২০১৭
 
 
 


পাবনা জেলার চাটমোহর উপজেলার হরিপুর গ্রামের পৈত্রিক ভিটায় ‘প্রমথ চৌধুরী স্মৃতি পাঠাগার’ উদ্বোধন করা হয়েছে।

বাংলা সাহিত্যে চলিত রীতির প্রবর্তক ও বীরবল খ্যাত প্রমথ চৌধুরীর স্মৃতি রক্ষায় এ পাঠাগার স্থাপন করা হয়েছে। এর মাধ্যমে স্থানীয় সাহিত্যপ্রেমী ও সাংস্কৃতিক কর্মীদের মধ্যে বইছে আনন্দের বন্যা।

বৃহস্পতিবার দুপুরে জেলা প্রশাসক রেখা রানী বালা প্রধান অতিথি হিসেবে ফলক উন্মোচন ও ফিতা কেটে ‘প্রথম চৌধুরী স্মৃতি পাঠাগার’ উদ্বোধন করেন। পরে এক সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভায় জেলা প্রশাসক বলেন, চাটমোহরের হরিপুরে ছিল প্রমথ চৌধুরীর পৈত্রিক ভিটা, একারণে পাবনাবাসী আজ গর্বিত সেখানে তার স্মৃতি রক্ষায় কিছু একটা করতে পেরে। এই পাঠাগার উদ্বোধনের মাধ্যমে বর্তমান প্রজন্ম প্রমথ চৌধুরী সম্পর্কে জানতে পারবে, অহংকার করতে পারবে। জ্ঞানার্জনের মধ্যে দিয়ে নতুন প্রজন্ম মাদক, সন্ত্রাস থেকে দূরে থাকবে, নিজের শেকড়কে ধরে রাখবে বলেও আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

চাটমোহর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বেগম শেহেলী লায়লার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশিষ্ট গবেষক মনোজ মন্ডল, উপজেলা চেয়ারম্যান হাসাদুল ইসলাম হীরা, উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) মিজানুর রহমান, চাটমোহর প্রেসক্লাব সভাপতি রকিবুর রহমান টুকুন, থানার ওসি (তদন্ত) শরিফুল ইসলাম, হরিপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মকবুল হোসেন, হরিপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ মোজাম্মেল হক রওশন, প্রমথ চৌধুরী স্মৃতি সংরক্ষণ পরিষদের সভাপতি ইকবাল কবির রঞ্জু, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মমিনসহ সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও সুশিল সমাজের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত: দীর্ঘদিন প্রমথ চৌধুরীর পৈত্রিক নিবাস অবৈধ দখলদারদের দখলে ছিল। ২০১৬ সালের ৮ সেপ্টেম্বর ‘প্রমথ চৌধুরী স্মৃতি সংরক্ষণ পরিষদ’-এর আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে চলতি বছরের গত ১৯ এপ্রিল জেলা প্রশাসন প্রায় ৩ একর জায়গা অবৈধ দখলমুক্ত করে। উক্ত ভিটায় জেলা প্রশাসন কর্তৃক বরাদ্দকৃত দুই লাখ ৬০ হাজার টাকা ব্যয়ে সোলার প্যানেল স্থাপন ও গ্রন্থাগার নির্মাণ করা হয়। পাঠাগার স্থাপন হওয়ায় স্থানীয় সামাজিক, সাংস্কৃতিক, সুশিল সমাজের প্রতিনিধি ও সাহ্যিপ্রেমিরা প্রশাসনকে সাধুবাদ জানিয়েছে।

প্রমথ চৌধুরী স্মৃতি সংরক্ষণ পরিষদের সভাপতি ইকবাল কবির রঞ্জু প্রতিক্রিয়ায় বলেন, আমাদের দাবি ছিল পৈত্রিকা ভিটা অবৈধ দখলমুক্ত করে সেখানে প্রমথ চৌধুরীর স্মৃতি রক্ষার্থে পাঠাগার, বিশ্ববিদ্যালয়, পিকনিক স্পটসহ বিভিন্ন স্থাপনা তৈরী করার। আজ আমরা খুশি যে, জেলা প্রশাসন আমাদের সে দাবি পূরণে কাজ শুরু করেছে। ইতিমধ্যে পাঠাগার স্থাপন করা হয়েছে। ভবিষ্যতে আরো কিছু হবে এ প্রত্যাশা করি।

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71