বুধবার, ১৭ জুলাই ২০১৯
বুধবার, ২রা শ্রাবণ ১৪২৬
 
 
ফাইনালে কিউয়িদের পরাজয়ের কারণ কি?
প্রকাশ: ১২:৪৮ pm ২৯-০৩-২০১৫ হালনাগাদ: ১২:৪৮ pm ২৯-০৩-২০১৫
 
 
 


রোববার বিশ্বকাপের ফাইনালে নিউজিল্যান্ড অস্ট্রেলিয়ার কাছে দাঁড়াতেই পারেনি।
কেন? এই প্রশ্নে মেলবোর্ন থেকে সাবেক ক্রিকেটার আমিনুল ইসলাম বুলবুল এবং বিশ্লেষক বোরিয়া মজুমদার অভিন্ন ব্যাখ্যা দিয়েছেন – এমসিজির মাঠ এবং মিচেল স্টার্কের ওপেনিং স্পেলেই হেরে গেছে নিউজিল্যান্ড।
বোরিয়া মজুমদার বলেন, ম্যাচটি পঞ্চাশ শতাংশ শেষ হয়ে যায় যখন প্রথম ওভারেই স্টার্ক ব্রেন্ডন ম্যাককালামের উইকেটটি নিয়ে নেন।
বাংলাদেশে ক্রিকেটের সাবেক অধিনায়ক আমিনুল ইসলাম বুলবুল যোগ করেন, অস্ট্রেলিয়া প্রধানত দুজন কিউয়ি ব্যাটসম্যানকে টার্গেট করেছিল -- ম্যাককালাম এবং কোরি অ্যান্ডারসন -- এবং তারা সফল হয়েছে।
বিশ্বকাপে নিউজিল্যান্ডের সাফল্যের পেছনে প্রধান ভূমিকা ছিল তাদের এই দুই ব্যাটসম্যানের। অথচ ফাইনালে তারা কোন রানই পাননি।
মি বুলবুলের মতে, রান না পাওয়ার কারণ অস্ট্রেলিয়ার দুর্ধর্ষ বোলিং। "অস্ট্রেলিয়ার পাঁচজন বোলার পুরো ইনিংসে এক মুহূর্তের জন্য ছাড় দেননি...অথচ সাউদি এবং ট্রেন্ট ছাড়া নিউজিল্যান্ডের তেমন কেউ স্ট্রাইক বোলার নেই।"
বোরিয়া মজুমদার বলেন, প্রথম ওভারে ম্যাককালামের উইকেট নিয়ে যে চাপ অস্ট্রেলিয়া তৈরি করেছিল, নিউজিল্যান্ড সেই চাপ থেকে আর বেরুতে পারেনি।
মাঝে রস টেইলর এবং গ্রান্ট এলিয়ট কিছুটা গুছিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু টেইলরের উইকেট যাওয়ার পর তাসের ঘরের মত ভেঙ্গে পড়ে অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটিং লাইন-আপ।
ফাইনালের আগ পর্যন্ত অপরাজিত ছিল কিউয়িরা। এমনকি গ্রুপ স্টেজে তারা অস্ট্রেলিয়াকেও হারিয়েছিল। কিন্তু ফাইনালে এমন দুর্বল কেন দেখালো তাদের?
বোরিয়া মজুমদার বলেন, এমসিজির বড় মাঠ, ভিন্ন পিচ, নব্বই হাজার দর্শক নিউজিল্যান্ডকে বড় ধরণের অস্বস্তিতে ফেলে দিয়েছিল।
"নিউজিল্যান্ডকে আজ তাদের কমফোর্ট জোনের বাইরে চলে আসতে হয়েছিলো। ফলে টসে জিতে যে বাড়তি সুবিধে তারা পেয়েছিল, তা কাজে লাগাতে ব্যর্থ হয় তারা।"
মি মজুমদার বলেন, ম্যাচটি যদি মেলবোর্নে না হয়ে অকল্যান্ডে হত, নিউজিল্যান্ডকে অন্য রূপে হয়তো দেখা যেত।

তবে বোরিয়া মজুমদার এবং আমিনুল ইসলাম বুলবুল দুজনেরই মত ছিল, হোম কন্ডিশনের সুবিধা হয়ত অস্ট্রেলিয়া নিশ্চিতভাবেই পেয়েছে, কিন্তু যোগ্যতর দল হিসাবেই তারা শিরোপা জিতেছে।


সুত্র: বিবিসি বাংলা

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক : সুকৃতি কুমার মন্ডল 

 খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

+8801711-98 15 52

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71