মঙ্গলবার, ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
মঙ্গলবার, ৭ই ফাল্গুন ১৪২৫
 
 
বগুড়ায় ধ্বংসের পথে ২শ' বছরের শিব মন্দির
প্রকাশ: ০৫:৫৬ pm ২৫-০৯-২০১৮ হালনাগাদ: ০৫:৫৬ pm ২৫-০৯-২০১৮
 
বগুড়া প্রতিনিধি
 
 
 
 


বগুড়ার দুপচাঁচিয়া উপজেলার গোবিন্দপুরের জাগ্রত শিব মন্দিরটি সংস্কারের অভাবে এখন ধ্বংসের পথে। মন্দিরের নামে জায়গা জমি থাকলেও দীর্ঘ দিনেও কোন সংস্কার করা হয়নি। স্থানীয় হিন্দু সম্প্রদায়ের বাসিন্দারা বলছেন প্রায় ২ শত বছরের পুরনো শিব মন্দিরটি সংস্কার না করায় সেপি ক্ষয়ে যাচ্ছে। তারা মন্দিরটি সংস্কারের জন্য দাবি জানিয়েছে।

বগুড়ার দুপচাঁচিয়া উপজেলার গোবিন্দপুর এলাকার হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজনের সাথে কথা বলে জানা গেছে, প্রায় ২ শত বছর পূর্বে শিব মন্দিরটি স্থাপিত হয়। সেই সময় মন্দিরটির অবস্থান ছিল প্রায় ২৮ শতাংশ জায়গার উপর। বর্তমানে তা বেদখল হয়ে মন্দিরের ভিতে এসে ঠেকেছে। এ ছাড়াও মন্দিরের নামে বেশ কিছু জমি থাকলেও তা প্রভাশালীরা এবং স্থানীয় হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন দখল করে ভোগ করছে। মন্দিরের ওই সম্পত্তিগুলো এনিমি প্রপার্টি হয়ে গেছে। মন্দির চত্বরে আগে ধুমধাম করে দুর্গা পূজাসহ বিভিন্ন পূজা উৎসব পালিত হতো। এখন আর তা হয় না। তবে এখনো প্রতি বছর মন্দিরের সামনে লক্ষ্মীপূজা হয়ে থাকে। স্বাধীনতার পর থেকে মন্দিরটি সংস্কারের কোন সহযোগিতা না থাকায় তা ধ্বংস হয়ে যেতে শুরু করেছে। 

এলাকায় জনশ্রুতি রয়েছে যে স্বাধীনতার পর ঢাকা ও মহাস্থান জাদুঘরের কর্মকর্তারা এসে ওই শিব মন্দিরে থাকা প্রতিমাগুলো সংরক্ষণের জন্য নিয়ে গেছে। বগুড়ার দুপচাঁচিয়া উপজেলার গোবিন্দপুর উচ্চ বিদ্যালয় ও প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে অবস্থিত শিব মন্দিরটি গত বছর বৃষ্টিতে সামনের অংশ ধ্বসে পড়ে। এছাড়া মন্দিরের গায়ে পরগাছা জন্ম নিয়েছে। বিভিন্ন অংশে ফাটল দেখা দিয়েছে। নিরাপত্তা বেষ্টনি না থাকায় এটি আরো অনিরাপদ হয়ে উঠেছে। স্থানীয় হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন মন্দিরটি দ্রুত সংস্কার করে তার ঐতিহ্য রক্ষার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

বগুড়ার দুপচাঁচিয়া গোবিন্দপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মজিবর রহমান জানান, শিব মন্দিরটি ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। এ বিষয়ে গণপূর্ত বিভাগসহ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের মাধ্যমে মন্ত্রণালয়ে ইতিপূর্বে অবগত করা হলেও কোন ফলাফল পাওয়া যায় নি। গোবিন্দপুরের মূল রাস্তা ঘেঁষে এবং বিদ্যালয়ের মাঠে এটি অবস্থান করায় বর্ষা মৌসুমে ঝুঁকিতে থাকে। যে কোন মুহূর্তে প্রাচীন এই শিব মন্দিরটি ভেঙে পড়ে দুঘর্টনার আশংকা রয়েছে। 

নি এম/

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক : সুকৃতি কুমার মন্ডল 

 খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

+8801711-98 15 52

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71