বুধবার, ১৬ জানুয়ারি ২০১৯
বুধবার, ৩রা মাঘ ১৪২৫
 
 
বর্ষীয়ান সাংবাদিক অমিত বসু আর নেই
প্রকাশ: ০১:১৭ am ০৪-০৭-২০১৭ হালনাগাদ: ০১:১৭ am ০৪-০৭-২০১৭
 
 
 


ডেস্ক নিউজ: বর্ষীয়ান সাংবাদিক অমিত বসু আর নেই।

রবিবার ভোরে কলকাতার ১১/৭ বি রামকৃষ্ণ দাস লেনের বাড়িতে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মৃত্যু হয় তাঁর। দুই মাস আগে তাঁর ফুসফুসে ক্যান্সার ধরা পড়েছিল।

মৃত্যুকালের তাঁর বয়স হয়েছিল ৬১ বছর। তিনি একমাত্র পুত্র, বৃদ্ধা মা ছাড়াও এক দিদি ও এক ভাইসহ অসংখ্য স্বজন-বন্ধু এবং সাংবাদিক সহকর্মী রেখে গেছেন।

তাঁর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন কলকাতা প্রেসক্লাবের সভাপতি স্নেহাশীষ সুর ও সম্পাদক কিংশুক প্রামাণিকসহ কলকাতার বাংলাদেশের গণমাধ্যমের কর্মরত সাংবাদিকবৃন্দ।

এছাড়াও শোক প্রকাশ করেছেন কলকাতার বাংলাদেশ উপদূতাবাসের ভারপ্রাপ্ত ডেপুটি হাইকমিশনার মিয়া মহম্মদ মাইনুল কবির।

অমিত বসুর দিদি সুমিতা ঘোষ তাঁর মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করে জানান, অনেক রাত পর্যন্ত লেখালেখি করতেন অমিত বসু। রবিবার ভোরের দিকে তিনি ঘুমিয়ে পড়েছিলেন।

সকালে তার কোন সাড়াশব্দ না পেয়ে গৃহপরিচারিকরা ডাক্তারকে খবর দেন। অমিত বসুর পারিবারিক চিকিৎসক এসে তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। সুমিতা ঘোষ আরও জানান, সোমবার বিকেলে কলকাতার নিমতলা মহাশ্মশানে প্রয়াতের শেষকৃত্যানুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে।

অমিত বসু দীর্ঘদিন বাংলাদেশের গণমাধ্যমের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। দৈনিক জনকণ্ঠ পত্রিকায় কলকাতা প্রতিনিধি হিসেবে দীর্ঘদিন কাজ করেছেন।

একই সঙ্গে কলকাতার ‘তারা নিউজ’ এর বাংলাদেশ বিষয়ক সম্পাদকদের দায়িত্বও পালন করেছেন তিনি। পেশার কারণে ভারত, বাংলাদেশসহ বিশ্বের বহু দেশে ঘুরে বেরিয়েছেন বর্ষীয়ান ওই সাংবাদিক।

গত কয়েক বছরে ধরে আনন্দ বাজার পত্রিকার অনলাইন সংস্করণে নিয়মিত বাংলাদেশ বিষয়ক বিশ্লেষণধর্মী নিবন্ধ লিখতেন। দৈনিক কালের কণ্ঠ পত্রিকায় ‘এপার-ওপার’ শিরোনামেও সাপ্তাহিক কলাম লিখতেন তিনি। কলকাতার অনলাইন পত্রিকা এই মুহূর্তে ডটকম-এর প্রধান সম্পাদকের দায়িত্বও পালন করেছেন বেশ কিছুদিন।

কলাম লেখার পাশাপাশি কয়েক বছর ধরে নিয়মিত উপন্যাসও লিখে গেছেন অমিত বসু। মরমিয়া, বিহান, উজান তার লেখা উপন্যাসের মধ্যে অন্যতম।

দৈনিক মানবজমিন পত্রিকায় ২০১৬ সালে ঈদ সংখ্যায় ‘দোসর’ উপন্যাস প্রকাশিত হয়। এটাই তাঁর লেখা শেষ উপন্যাস। কলকাতায় দোসর উপন্যাসের আনুষ্ঠানিক মোড়ক উন্মোচনের প্রস্তুতির মধ্যেই বর্ষীয়ান এই লেখকের প্রয়াণ ঘটল। অমিত বসুর জন্ম হয়েছিল ১৯৫৭ সালে ৯ আগস্ট।

 

এইবেলাডটকম/পিসিএস 

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক : সুকৃতি কুমার মন্ডল 

 খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

+8801711-98 15 52

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71