শুক্রবার, ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮
শুক্রবার, ৩০শে অগ্রহায়ণ ১৪২৫
 
 
বহুমূত্র রোগে নিরাময় করুন ঘরোয়া পাঁচ উপায়ে
প্রকাশ: ০৬:৪৩ pm ০৯-০৫-২০১৮ হালনাগাদ: ০৬:৪৬ pm ০৯-০৫-২০১৮
 
এইবেলা ডেস্ক
 
 
 
 


সাম্প্রতিক সময়ে ডায়াবেটিকস বা বহুমূত্র রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন বহু মানুষ। দিনে ছয় থেকে সাতবার প্রস্রাব খুবই স্বাভাবিক। কিন্ত আপনি যদি অতিরিক্ত মূত্র ত্যাগ করেন, অথবা প্রতি রাতে আপনার এই কারণেই নিয়মিত ঘুম ভেঙে যেতে থাকে, তাহলে বুঝতে হবে আপনি এই রোগের শিকার। এটি আপনার পক্ষেও যথেষ্টই অস্বস্তিকর। মানে, আপনি কোনও অনুষ্ঠান বা গেট টুগেদারে দিয়ে যদি ঘন ঘন টয়লেটে যান, সেটি আপনাকেও যথেষ্ট অস্বস্তিতে ফেলবে। তবে এই সমস্যা থেকে মুক্তির জন্য রয়েছে কিছু সহজ সমাধান। এগুলো মেনে চললে এই রোগ নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব। 

১. ব্যায়াম করুন নিয়মিত:
এই ব্যায়ামের মধ্যে দিয়ে আপনি স্বাভাবিক সময়ের থেকে বেশী সময় ধরে মূত্র চেপে ধরে রাখতে পারবেন। এর ফলে আপনার দু’বার প্রস্রাব করার মাঝের ব্যবধান বাড়বে। এতে ব্লাডার বা মূত্রথলির ধারণ ক্ষমতাও বৃদ্ধি পাবে।

প্রথমে চিত হয়ে শুয়ে পড়ুন। তারপর হাঁটু ভাঁজ করুন। এবারে ওই অবস্থাতেই দুই পায়ের পাতায় ভর দিয়ে কোমর ও পিঠকে ওপর দিকে তুলুন। এভাবে পাঁচ সেকেন্ড ধরে রাখুন, তারপর নামিয়ে নিন। এতে আপনার শরীরের যে অংশটিকে তুলে রেখেছেন, সেই অংশের পেশিতে চাপ পড়বে। আপনি নিজের মনোযোগকেও ওই পেশির জায়গাতেই রাখুন। শ্বাস-প্রশ্বাসও স্বাভাবিক রাখুন। এক একবারে দশবার করে দিনে অন্তত চার থেকে পাঁচবার এই ব্যায়ামটি করুন। সকালে ওঠার পরে, দুপুরে খাওয়ার আগে, ডিনারের আগে ও রাতে শোয়ার আগে এই ব্যায়ামটি অভ্যাস করতে থাকুন। অন্তত দুই মাস এই ব্যায়াম করুন ফলাফল পেতে। এর মধ্যে আপনাকে টানা এই ব্যায়ামের অভ্যাসটি ধরে রাখতে হবে।

২. ডায়েটে রাখুন ফাইবারযুক্ত খাবার:
আপনার প্রতিদিনের খাদ্যাভ্যাসে ফাইবারযুক্ত খাবার থাকাটা খুবই দরকার। এর জন্য আপনি রোজ খান- আপেল, কলা, চেরি, ব্রাউন রাইস, আলু এবং ফাইবারযুক্ত আরও সমস্ত খাবার। এতে আপনি বহুমূত্র রোগ থেকে সহজেই মুক্তি পাবেন। পাশাপাশি আপনাকে এড়িয়েও যেতে হবে কিছু খাবার। যেমন- বেকড ফুড, রেড মিট, জ্যাফিন, চকোলেট, মশলাদার খাবার, রাস্তার জাংক ফুড, গোল মরিচ ইত্যাদি। এই খাবারগুলি আপনার মূত্রথলিকে উত্তেজিত করে তোলে এবং আপনাকে বারবার টয়লেটে যেতে হয়। ফলে ডায়েট সম্পর্কে সচেতন থাকলেও আপনি খুব সহজেই এই অসুখ থেকে মুক্তি পাবেন।


৩. মেথি বীজ ব্যবহার করুন:
মেথি বীজে থাকে যথেষ্ট পরিমাণ ক্যালোরি, ফাইবার ও প্রোটিন। আপনি রোজ সকালে মেথি গুঁড়ো নিয়মিত খান। মেথি ভেজানো পানিও খেতে পারেন। এটি আপনার শরীরের আরও নানান উপকারের মতো বহুমূত্র রোগের ক্ষেত্রেখুবই কার্যকরী। মেথি বীজ মূত্রথলির ধারণ ক্ষমতা বাড়াতে সাহায্য করে। আজই ব্যবহার শুরু করে দিন।

৪. অভ্যাস করুন অ্যাক্যুপ্রেশার:
অ্যাক্যুপ্রেশার পয়েন্ট আমার আপনার হাত ও পায়ের চেটোতে ছড়িয়ে রয়েছে। এই প্রতিটি পয়েন্ট আসলে কোনও না কোনও শারীরিক প্রক্রিয়ার সাথে জড়িত। আপনি রোজ নিয়মিত এই পয়েন্টগুলিতে চাপ দিলে শরীরেরও অনেক সমস্যাকেই এড়াতে পারেন। এমনই একটি অ্যাক্যুপ্রেশার পয়েন্ট বা বিন্দু নির্ধারিত রয়েছে মূত্রথলির জন্য। আপনার হাতের চেটোর নিচের দিকে কবজি ঘেঁষে বুড়ো আঙ্গুলের পাশে এক কোণায় এই ব্লাডার পয়েন্ট অবস্থিত। এটিতে সকাল সন্ধ্যে যদি নিয়মিত চাপ দিতে থাকেন, তাহলে আপনার বহুমূত্রের সমস্যার ক্ষেত্রে কার্যকরী হতে পারে এটি। তাই এখনই একবার চেষ্টা করে দেখুন, আর অভ্যাস করে নিন।

৫. নিয়মিত খান টক দই:
টক দই একটু ধীরে হলেও মূত্রথলির ও মূত্রনালির ক্ষতিকর মাইক্রো অর্গ্যানিজমকে রদ করে। এর মধ্যেকার ব্যাকটেরিয়া শরীরের ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়াগুলিকে নষ্ট করে দেয়। তাই আপনি ইউরিন ইনফেকশানের সমস্যার মতো আরও সমস্যার হাত থেকে মুক্তি পেতে পারেন। প্রতিদিন আপনি যদি নিয়মিত এক-দুই পাত্র দই খেতে পারেন, তাহলে আপনার ব্লাডার বা মূত্রথলিও সুস্থ থাকবে এর ফলে। তাই আজই নিয়মিত দই খাওয়া অভ্যাস করুন।

বিডি


 

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71