শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮
শনিবার, ৩রা অগ্রহায়ণ ১৪২৫
 
 
বাফার ৬৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন
প্রকাশ: ০৯:০৪ pm ১৩-০৫-২০১৮ হালনাগাদ: ০৯:০৪ pm ১৩-০৫-২০১৮
 
এইবেলা ডেস্ক
 
 
 
 


বুলবুল একাডেমি অব ফাইন আর্টস (বাফা) এর ৬৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে তিন মাসব্যাপী অনুষ্ঠানমালার উদ্বোধন করেছেন বাফার প্রতিষ্ঠাতা সদস্য এবং ইমেরিটাস অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান। 

শনিবার বিকেলে তিনি কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বরে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানমালার উদ্বোধন করেন। এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাফা সম্পাদক মো. ফজলুর রহমান। 

বাফা সভাপতি মো. হাসানুর রহমান বাচ্চুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বাফা কোষাধ্যক্ষ কবির আহমেদ, সকল নির্বাহী, সাধারণ সদস্যবৃন্দ, অধ্যক্ষ, উপ-অধ্যক্ষ, শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকরা উপস্থিত ছিলেন। উদ্বোধন শেষে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বরে একাডেমির ছাত্রছাত্রীরা সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে অংশ নেয়। এসময় ছোট-বড় বিভিন্ন ক্যাটাগরির ছাত্রছাত্রীরা নাচ-গান-আবৃত্তিতে শহীদ মিনার চত্বর মাতিয়ে রাখে। বাফার প্রতিষ্ঠাতা সদস্য হিসেবে প্রথমেই এ সংগঠন নিয়ে স্মৃতিচারণ করেন অধ্যাপক আনিসুজ্জামান। 

তিনি বলেন, ১৯৫৫ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্জন হলে মামুন নুরুল হুদা, কাজী মোতাহার হোসেন, বিচারপতি ইব্রাহীমসহ আমরা কয়েকজন মিলে নৃত্যাচার্য্য বুলবুল চৌধুরীর শিল্পকলাকে বাঁচিয়ে রাখতে বুলবুল একাডেমি অফ ফাইন আর্টস প্রতিষ্ঠা করি। প্রথমে ছোট পরিসরে প্রতিষ্ঠিত হলেও বর্তমানে এ একাডেমির পরিসর অনেক বড় হয়েছে। এর রয়েছে অনেকগুলো শাখা। এসব দেখে খুব ভালো লাগছে। 

তিনি বলেন, বাফার ৬৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে আসতে পেরে খুব ভালো লাগছে। সামনের দিনগুলোতেও এমনভাবে আসার চেষ্টা করব। তিনি এ প্রতিষ্ঠানের উত্তরোত্তর সাফল্য কামনা করেন। 

স্বাগত বক্তব্যে বাফা সম্পাদক মো. ফজলুর রহমান প্রতিষ্ঠা থেকে বর্তমানকাল পর্যন্ত বাফার ইতিহাস তুলে ধরে বলেন, আমরা ভালোবেসে এ সংগঠনের সঙ্গে আছি। অতীতেও ছিলাম, ভবিষ্যতেও থাকবো। 

সভাপতির বক্তব্যে বাফা সভাপতি হাসানুর রহমান বাচ্চু প্রতিষ্ঠাকালীন সদস্যদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান। এরপর স্মৃতিচারণ করে বলেন, বাফার সঙ্গে আমার সম্পর্ক অত্যন্ত মধুর। এ সংগঠনের সভাপতি হতে পেরে নিজেকে ভাগ্যবান মনে করছি। আমরা এ সংগঠনকে আরও সমুন্নত করার চেষ্টা করছি। দেশের প্রত্যেক জেলায় বাফার শাখা প্রতিষ্ঠা করা আমাদের অন্যতম লক্ষ্য। তবে আমাদের প্রধান লক্ষ্য হচ্ছে, নৃত্যাচার্য্য বুলবুল চৌধুরীর নামে ‘বুলবুল ইউনিভার্সিটি’ প্রতিষ্ঠা করা। এজন্য আমরা সরকারের কাছে আকুল আবেদন জানাই, যাতে এ ইউনিভার্সিটি প্রতিষ্ঠা পায়। 

তিনি বলেন, বর্তমানে ওয়াইজঘাটের যে জায়গায় বাফা অবস্থিত তা সরকার থেকে লিজ নেয়া। আমরা চাই সরকার যেন এ জায়গা বুলবুল একাডেমির নামে করে দেয়। 

তিনি জানান, তিন মাসব্যাপী এ অনুষ্ঠানমালা ঢাকার বিভিন্ন জাদুঘর, পাবলিক লাইব্রেরি প্রভৃতি জায়গায় অনুষ্ঠিত হবে।

বিডি

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71