সোমবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
সোমবার, ৬ই ফাল্গুন ১৪২৫
 
 
বিক্রি হচ্ছে ব্রাজিলের দুই ফুটবল স্টেডিয়াম
প্রকাশ: ০৮:৩৫ am ০৫-০৪-২০১৫ হালনাগাদ: ০৮:৩৫ am ০৫-০৪-২০১৫
 
 
 


ব্রাজিলের ফুটবল অবকাঠামোর খারাপ ছবিটা ফের একবার সামনে চলে এলো।‌ ম্যাচ ফিক্সিং, সমর্থকদের মধ্যে দাঙ্গা, দুর্নীতির মতো অভিযোগ তো ছিলই।‌ এবার বিক্রি হতে চলেছে গত ফুটবল বিশ্বকাপে ব্যবহার হওয়া দুটি স্টেডিয়াম।‌ নাটাল শহরের এরিনা দাস দুনাস ও সালভাদোরের এরিনা ফম্তে নোভা।‌
১৯৭২-এর মাচাদো স্টেডিয়াম সম্পূর্ণ ভেঙে দাস দুনাস এরিনা তৈরি করা হয় বিশ্বকাপের জন্য। এবারের বিশ্বকাপের চারটি ম্যাচ হয়েছিল এই স্টেডিয়ামে। বিশেষজ্ঞদের মতে, ব্রাজিল কেন, গোটা দক্ষিণ আমেরিকায় দাস দুনাস এরিনার মতো আধুনিক স্টেডিয়াম নেই। তাহলে ব্রিক্রি হচ্ছে কেন?
এই স্টেডিয়াম তৈরির সময় ৯ কোটি পাউন্ড (প্রায় ৯০০ কোটি টাকা) খরচ করেছিল ব্রাজিলের অন্যতম বড় বাণিজ্যিক সংস্থা ও এ এস। এখন অর্থনৈতিক সংকটে পড়ে স্টেডিয়াম বিক্রি করে দিতে চাইছে তারা।‌ গত কয়েক মাস ধরেই ও এ এস অর্থিক সমস্যায় পড়েছে।‌ সংস্থার মধ্যে দুর্নীতি, অলাভজনক ব্যবসায় টাকা খাটানোর জন্য এই অবস্থা তাদের।
এখন কর্মকর্তারা চাইছেন স্টেডিয়াম বিক্রি করে যে টাকা পাওয়া যাবে, তা অন্য ব্যবসায় খাটাতে। একই সঙ্গে সালভাদোরের এরিনা ফন্তে নোভার অর্ধেক স্বত্ব বিক্রি করে দিতে চাইছে এ ও এস। এরিনা দাস দুনাসের মতো এই স্টেডিয়াম তৈরির সময়ও বিপুল টাকা খরচ করেছিল এই সংস্থা।‌
বিশ্বকাপের পর থেকে খুব বেশি ফুটবল খেলা হয়নি এরিনা ফম্তে নোভায়। সালভাদরের অন্যতম বড় ক্লাব এসপোর্তে বাহিয়া আগেই জানিয়ে দিয়েছে, এরিনা ফন্তে নোভা ব্যবহার করবে না তারা। ক্লাবের সমর্থকদের সঙ্গে মালিক কর্তৃপক্ষ খারাপ ব্যবহার করছেন এই অভিযোগে এই সিদ্ধাম্ত নিয়েছে তারা।‌ অব্যহৃত অবস্থায় পড়ে রয়েছে অন্য বেশ কিছু স্টেডিয়ামও।‌ স্টেডিয়ামের আকৃতি নিয়ে কিছু সমস্যা হওয়ায় বন্ধ কুইয়াবার এরিনা পান্তেনাল। কয়েকটি স্টেডিয়াম আবার ফুটবলের বদলে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের জন্য নিয়মিত ব্যবহৃত হচ্ছে।

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক : সুকৃতি কুমার মন্ডল 

 খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

+8801711-98 15 52

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71