মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০১৯
মঙ্গলবার, ১লা শ্রাবণ ১৪২৬
 
 
বেনাপোলে ধর্ষণের অভিযোগে পল্লী চিকিৎসক আটক
প্রকাশ: ০১:৩৫ am ০৩-০৯-২০১৫ হালনাগাদ: ০১:৩৫ am ০৩-০৯-২০১৫
 
 
 


যশোর প্রতিনিধি : যশোরের বেনাপোলে নার্স হিসেবে চাকরি দেয়ার প্রলোভন দেখিয়ে সাতক্ষীরার এক তরুণীকে (২০) আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগে এক পল্লী চিকিৎসককে আটক করেছে পুলিশ। আটক পল্লী চিকিৎসকের নাম শ্যামল সিং কক্সবাজার জেলার কুতুবদিয়া থানার বড়ঘুপ বাজার এলাকার মৃত কৃষ্ণ মোহন সিংহের  ছেলে।

২ সেপ্টেম্বর ভোরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ওই তরুণীকে উদ্ধার করে অভিযুক্ত  শ্যামল সিংকে আটক করে।

বেনাপোলে ধর্ষণের অভিযোগে শ্যামল সিং নামে এক পল্লী চিকিৎসককে আটক করেছে পুলিশ। নার্স হিসেবে চাকরি দেওয়ার কথা বলে এক তরুণীকে (২০) আটকে রেখে ধর্ষণ করে ওই চিকিৎসক।

আটক শ্যামল সিং কক্সবাজার জেলার কুতুবদিয়া থানার বড়ঘুপ বাজার এলাকার মৃত কৃষ্ণ মোহন সিংহের  ছেলে।

যশোর পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার শাফিন মাহমুদ জানিয়েছেন, বেনাপোল থানা পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে বেনাপোলে স্থলবন্দরের এলাকার মাহে আলমের বাড়িতে এক পল্লী চিকৎসক সাতক্ষীরার এক তরুণীকে আটকে রেখে ধর্ষণ করেছে।

এরপর ২ সেপ্টেম্বর ভোর ৬টার দিকে অভিযান চালিয়ে ওই তরুণীকে উদ্ধার করা হয়। একইসাথে ওই বাড়ি থেকে পল্লী চিকিৎসক শ্যামল সিং কে আটক করা হয়। এ ঘটনায় ওই তরুণী বাদী হয়ে শ্যামল সিংয়ের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে মামলা করেছে।

ওইদিনই তাকে আদালতে হাজির করা হয়। এরপর বিচারক তাকে কারাগারে প্রেরণ করেন।

নির্যাতিত তরুণী জানান, শ্যামল সিং এর সাথে তার মোবাইল ফোনে পরিচয় হয়। দীর্ঘদিন কথাবার্তায় সে নিজেকে চিকিৎসক বলে পরিচয় দেয়। একপর্যায়ে তাকে নার্সের চাকরি দেবার প্রস্তাব দেয়। তার প্রস্তাবে রাজি হয়ে গত ৩১ আগস্ট ভাইকে সাথে নিয়ে ওই তরুণী শ্যামলের দেয়া বেনাপোলের ঠিকানায় আসে।

এরপর শ্যামল মেয়েটির ভাইকে জানায় ১ সেপ্টেম্বর থেকে তার চাকরি শুরু হবে। একইসাথে তাকে বাড়ি চলে যেতে বলে। এরপর রাতে নিজ ঘরে আটকে রেখে দু’রাত তাকে ধর্ষণ করে। পরে পুলিশ গিয়ে তাকে উদ্ধার করে।

বেনাপোল থানা পুলিশ জানিয়েছে, শামল সিং কক্সবাজারের বাসিন্দা। সে দেশের বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে এ ধরণের প্রতারণা করে ব্যাপায়। 

এদিকে বুধবার দুপুরে নির্যাতিত মেয়েটিকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আনা হয়। এরপর চিকিৎসকরা কিছু নমুনা সংগ্রহ করে তাকে ফের পুলিশ হেফাজতে পাঠিয়েছে।


এইবেলা ডটকম/পিকেদাস/এইচ আর
 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক : সুকৃতি কুমার মন্ডল 

 খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

+8801711-98 15 52

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71