বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮
বুধবার, ১১ই আশ্বিন ১৪২৫
 
 
বেনাপোল বন্দরে ওভার টাইমের নামে অর্থ আদায়
প্রকাশ: ০৮:৫৩ pm ০২-০৮-২০১৭ হালনাগাদ: ০৮:৫৩ pm ০২-০৮-২০১৭
 
বেনাপোল প্রতিনিধি :
 
 
 
 


প্রথম দিনেই দেশের সর্ববৃহৎ স্থল বন্দর বেনাপোল সপ্তাহে ৭ দিন ২৪ ঘণ্টা খোলা ছিল। কাস্টমস ও বন্দরের কর্মকর্তা কর্মচারীরা দিন রাত বন্দর ও কাস্টম খোলা রেখে পন্য খালাশ দিয়েছে বন্দর থেকে। রাত দিন খোলা রাখায় বন্দরে ফিরে এসেছে প্রাণ চাঞ্চল্য। আফিসাররা দুই শিফটে ভাগ হয়ে দায়িত্ব পালন করেছেন। বন্দর ও কাস্টমস এর পৃথক মোবাইল টিম বন্দরে টহল দিয়েছে সার্বক্ষনিক। দিন রাত মিলে রাজস্ব আদায় হয়েছে ১২ কোটি টাকা। রাত ১ টা পর্যন্ত দু’দেশের মধ্যে আমদানি রফতানি বানিজ্য চালু ছিল। 

ভারত থেকে এ সময় ২৭০ ট্রাক মালামাল আমদানি হয়েছে ও রফতানি হযেছে ৮০ ট্রাক মালামাল। অন্যান্য দিনের তুলনায় পন্য আমদানি বেড়েছে। বর্তমানে বন্দরে পন্য জট নেই বললেই চলে। যানজটের কারনে ২/৩ ঘন্টা পন্য বোঝই ট্রাক আটকা থাকতো বন্দর এলাকায়। ফলে ব্যাহত হতো আমদানি-রফতানি বানিজ্য। 

ভারতীয় কাস্টমস কর্তৃপক্ষ তাদের পেট্রাপোল বন্দর সাত দিন খোলা রাখার জন্য নির্দেশনা দিয়েছে। তারা রাত একটা পর্যন্ত বাংলাদেশে পন্য রফতানি করেছে বলে ওপারের কাস্টমস ওয়েল ফেয়ার স্টাফ এসোসিয়েশনের সাধারন সম্পাদক কার্তিক চক্রবর্তি জানান। তবে রাজস্ব আদায় বৃদ্ধি ও আমদানি-রফতানি বাড়বে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন কাস্টমস ও বন্দর কর্মর্কর্তারা। 

বন্দর এলাকায় সন্ধ্যা থেকে রাত দশটা পর্যন্ত বিদ্যুত না থাকায় বন্দরের নিরাপওা ছিল ঝুঁকির মুখে। যদিও বন্দর থানা পুলিশ বন্দর এলাকায় নিরাপওা ব্যবস্থা জোরদার করে টহল দিয়েছে। এই মুহুর্তে বেনাপোলে সার্বক্ষনিক বিদ্যুত সরবরাহ নিশ্চিত করা সহ বন্দরে ক্রেন ফরক লিফট সচল রাখার জোর দাবি উঠেছে ব্যবসায়ীদের পক্ষ থেকে। এ উপলক্ষে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড কাস্টমস হাউসের জন্য নতুন করে অতিরিক্ত ৩৪ জন অফিসার নিয়োগ দিয়েছেন। 

ভারত বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্সের বন্দর সাব কমিটির চেয়ারম্যান মতিয়ার রহমান জানান, সরকারের ২৪/৭ কে আমরা স্বাগত জানাই তবে বন্দরের বিল শাখায় বিকেল পাঁচ টার পর ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে গেট পাশ প্রতি ওভার টাইমের নামে জোর করে ৫/৭’শ টাকা আদায় করে নিজেদের পকেট ভারি করছে বিল শাখায় কর্মরত কর্মকর্তারা। যেখান সরকার রাত দিন ২৪ ঘন্টা বন্দর ও কাস্টমস খোলা রেখে দু’দেশের মধ্যে ব্যবসা বানিজ্য প্রসার ঘটানোর চেষ্টা করছে সেখানে বন্দরের কতিপয় কর্মকর্তার দুর্নীতি ও অসহযোগীতার কারনে সরকারের এই উদ্যোগ তেমন একটা কাজে আসছে না। 

বন্দরের উপ-পরিচালক রেজাউল হোসেন জানান, বন্দরের কর্মকর্তারা সারারাত বন্দর খোলা রেখে কাজ করেছে। আগের তুলনায় বন্দরে যানজট কমেছে। তবে রাতে ব্যবসায়ীদের উপস্থিতি তুলনামুলক কম ছিল। যদি কেউ বন্দরের বিল শাখায় ওভার টাইমের নামে জোর করে অর্থ আদায় করে থাকে সেটা বেআইনী, বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হবে। 

বেনাপোল কাস্টমস কমিশনার শওকাত হোসেন জানান, রাতে কাস্টমস কর্মকর্তারা বন্দর ও কাস্টমস এ কাজ করেছে। কম্পিউটার ও এসেসমেন্ট গ্রুপ খোলা ছিল। অন্যন্য দিনের তুলনায় আমদানি বানিজ্য বেড়েছে। প্রথম দিনে রাজস্ব আয় হয়েছে ১২ কোটি টাকা। তবে রাজস্ব আয় আরো বাড়বে বলে আশা করছি।

এসএম

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71