বৃহস্পতিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮
বৃহঃস্পতিবার, ৫ই আশ্বিন ১৪২৫
 
 
ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি টিউলিপের
প্রকাশ: ০৯:৩৪ am ০৮-১১-২০১৭ হালনাগাদ: ০৯:৩৪ am ০৮-১১-২০১৭
 
এইবেলা ডেস্ক
 
 
 
 


যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরিস জনসনের পদত্যাগ দাবি করেছেন হ্যাম্পস্টেড অ্যান্ড কিলবার্ন এলাকার এমপি টিউলিপ সিদ্দিক। ইরানে গ্রেফতার হওয়া এক ব্রিটিশ নারীর বিষয়ে জনসনের বিতর্কিত মন্তব্যের জের ধরে এই দাবি জানিয়েছেন টিউলিপ।

লেবার পার্টি থেকে নির্বাচিত ব্রিটিশ এমপি, বঙ্গবন্ধুর নাতনি, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভাগ্নি ও শেখ রেহানার কন্যা টিউলিপ রেজওয়ানা সিদ্দিক। ইরানে আটক হওয়া তার নির্বাচনি এলাকার এক বন্দির মুক্তির জন্য প্রচারণা চালিয়ে আসছেন তিনি। 

জানা গেছে, ২০১৬ সালের এপ্রিল থেকে ইরানের কারাগারে বন্দি রয়েছেন নাজানিন জাগহারি র‍্যাটক্লিফ নামের ৩৩ বছর বয়সী ওই নারী। এর আগে ইরানের সরকার উৎখাতের কথিত প্রচেষ্টার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে তাকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়।

গত সপ্তাহে হাউস অব কমন্সের পররাষ্ট্র বিষয়ক কমিটিতে বিষয়টি নিয়ে কথা বলেন বরিস জনসন। এ সময় তিনি বলেন, জাগহারি র‌্যাটক্লিফ তেহরানে অবস্থানকালে সাংবাদিকতা পড়াতেন, ওই সময় তিনি গ্রেফতার হয়েছেন। তবে জনসনের এ মন্তব্যকে ‘গুরুতর ভুল’ হিসেবে অভিহিত করেছে থমসন রয়টার্স ফাউন্ডেশন। কারণ ব্রিটেন ও ইরানের দ্বৈত নাগরিকত্বের অধিকারী ওই নারী তখন তেহরানে সেবামূলক কাজ করছিলেন, সাংবাদিক বা সাংবাদিকতার শিক্ষক হিসেবে তিনি সেখানে ছিলেন না। আশঙ্কা করা হচ্ছে যে, ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ভুল বক্তব্যের কারণে ইরানে আটক নাজানিন জাগহারি র‍্যাটক্লিফের কারাদণ্ড আরও পাঁচ বছর বেড়ে যেতে পারে। বর্তমানে ইরানের আদালতের দেওয়া পাঁচ বছরের দণ্ড ভোগ করছেন তিনি।

নাজানিন সম্পর্কে ভুল বক্তব্য দেওয়ার ঘটনায় বরিস জনসনের পদত্যাগ দাবি করেছেন টিউলিপ সিদ্দিক। পররাষ্ট্রমন্ত্রীর ভুলের কারণে নিজের নির্বাচনি এলাকার ওই ব্যক্তিকে যদি একদিনও বেশি জেলে থাকতে হয় তাহলে জনসনের পদত্যাগ করা উচিত বলে দাবি করেছেন হ্যাম্পস্টেড অ্যান্ড কিলবার্ন এলাকার এমপি টিউলিপ সিদ্দিক।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘বরিস জনসনকে অবশ্যই তার মন্তব্য প্রত্যাহার করতে হবে ও সঠিত তথ্য বলতে হবে। তাকে অবশ্যই পররাষ্ট্র বিষয়ক কমিটিতে দেওয়া নাজানিন বা তার পরিবারকে দেখতে যাওয়ার প্রতিশ্রুতি রক্ষা করতে হবে। ব্রিটেনের সিনিয়র কূটনীতিক হিসেবে এ ব্যাপারে জনসনের ভূমিকা তার মর্যাদাকে প্রতিফলিত করবে। তিনি যদি সঠিকভাবে দায়িত্বপালন পালন করতে ব্যর্থ হন তাহলে নিজের পদ থেকে সরে যাওয়াই বুদ্ধিমানের কাজ হবে তার জন্য।’

সম্প্রতি, নভেম্বরের ৪ তারিখে তেহরানের আদালতে আবারও হাজির করা হয় নাজানিনকে। গত সপ্তাহে ব্রিটেনের হাউজ অব কমন্সে দেওয়া ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরিস জনসনের বক্তব্যের উদ্ধৃতিকে তার বিরুদ্ধে নতুন প্রমাণ হিসেবে উপস্থাপন করা হয় সেখানে। ইরানিয়ান শাসন ব্যবস্থার বিরুদ্ধে প্রচারণা চালানোর সন্দেহে নাজানিনের বিরুদ্ধে বিচার চলছে ইরানের আদালতে। কিন্তু নাজানিন জাগহারি র‌্যাটক্লিফের লন্ডনে বসবাসকারী স্বামী রিচার্ড র‌্যাটক্লিফ নিজের স্ত্রীকে নিরপরাধ দাবি করেছেন। তিনি ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে তার বক্তব্য প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছেন এবং নাজানিনকে যুক্তরাজ্যে ফিরিয়ে আনতে ভূমিকা রাখতে বলেছেন।  

বিএম/

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71