বৃহস্পতিবার, ২২ নভেম্বর ২০১৮
বৃহঃস্পতিবার, ৮ই অগ্রহায়ণ ১৪২৫
 
 
বড় ধরনের যুদ্ধের ইঙ্গিত ট্রাম্পের
প্রকাশ: ০৬:১৮ pm ২৯-০৪-২০১৭ হালনাগাদ: ০৬:১৮ pm ২৯-০৪-২০১৭
 
 
 


আন্তর্জাতিক ডেস্ক::  পরমাণু ও ক্ষেপণাস্ত্র ইস্যুতে উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে বড় ধরনের সামরিক যুদ্ধের ইঙ্গিত দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তবে তিনি কোরীয় উত্তেজনার 'কূটনৈতিক সমাধান' চান বলেও উল্লেখ করেছেন।

আগামী শনিবার ক্ষমতা গ্রহণের ১০০ দিন উপলক্ষে বৃহস্পতিবার হোয়াইট হাউসের ওভাল অফিসে বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে দেয়া একান্ত সাক্ষাৎকারে মার্কিন প্রেসিডেন্ট এ ইঙ্গিত দেন।

৪২ মিনিটের ওই সাক্ষাৎকারে ট্রাম্প জানান, অবশ্যই তারা উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে কূটনৈতিক সমাধান চান। তবে পরমাণু ও ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা থেকে উত্তর কোরিয়া সরে না এলে বড় ধরনের সামরিক সংঘাতের সম্ভাবনা রয়েছে।

তিনি বলেন, 'অন্য মার্কিন প্রেসিডেন্টদের মতো আমিও শান্তিপূর্ণ উপায়ে উত্তর কোরিয়া সংকটের সমাধান চাই। এ কারণে সামরিক পথের পরিবর্তে অর্থনৈতিক অবরোধ আরোপের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমরা কূটনৈতিক উপায়ে সমাধান চাইলেও তা খুব কঠিন।'

উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন সম্পর্কে ট্রাম্প বলেন, 'আমি মনে করি তিনি (কিম জং উন) যৌক্তিক হবেন। আমি মনে করি, উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে হতে যাওয়া এক বিশাল সামরিক সংঘাত এড়ানোর পথ অবশ্যই আছে।'

মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, 'মাত্র ২৭ বছর বয়সে বাবার মৃত্যুর পর শাসন ক্ষমতায় আসেন তিনি (কিম জং উন)। এ অল্প বয়সে অনেক কিছুই করা সহজ নয়। তবে আমি তাকে কৃতিত্ব দিচ্ছি না।'

সাক্ষাৎকারে চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিন পিংকে 'খুব ভালো মানুষ' আখ্যায়িত করে তিনি বলেন, 'শি জিন পিং খুবই ভালো মানুষ। আমি তার সম্পর্কে বেশ ভালো করেই জানি। তিনি চীনকে ভালোবাসেন, চীনের মানুষকে ভালোবাসেন।'

উত্তর কোরিয়া প্রশ্নে চীনা প্রেসিডেন্টের অবস্থান সম্পর্কে ট্রাম্প বলেন, 'আমি জানি, সামর্থের শেষ পর্যন্ত তিনি এ বিষয়ে কিছু না কিছু করার চেষ্টা করবেন। কারণ চীনা প্রেসিডেন্টও এখানে কোনো সংঘাত দেখতে চান না।'

সাক্ষাৎকারে মার্কিন প্রেসিডেন্ট দক্ষিণ কোরিয়া, মধ্যপ্রাচ্য, সৌদি আরব, ইসরাইল-ফিলিস্তিন শান্তিু চুক্তি নিয়েও কথা বলেন। দক্ষিণ কোরিয়া ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষাব্যবস্থা থাডের প্রায় ১০০ কোটি ডলার পরিশোধ করুক বলে চান ট্রাম্প। তিনি এ সময় দক্ষিণ কোরিয়ার সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের মুক্ত বাণিজ্য চুক্তি পুনর্বিবেচনা করারও আভাস দেন।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ইসরাইল-ফিলিস্তিনের শান্তি দেখতে চান বলে জানান। তিনি অভিযোগ করেন, যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার জন্য সৌদি আরব নিজেদের অংশের মূল্য পরিশোধ করছে না।

ইসলামি দেশগুলো প্রসঙ্গে ট্রাম্প বলেন, জঙ্গিবাদকে পরাস্ত করতে হবে।

 

এইবেলাডটকম/প্রচ

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71