বুধবার, ২৪ জুলাই ২০১৯
বুধবার, ৯ই শ্রাবণ ১৪২৬
 
 
ভারতে বজ্রবৃষ্টি ও ধূলিঝড়ে নিহত ৩৪
প্রকাশ: ০৮:৫৬ am ১৪-০৫-২০১৮ হালনাগাদ: ০৮:৫৬ am ১৪-০৫-২০১৮
 
এইবেলা ডেস্ক
 
 
 
 


দিল্লি, অন্ধ্রপ্রদেশ, উত্তরপ্রদেশ, পশ্চিমবঙ্গে বজ্রসহ বৃষ্টিপাত ও ধূলি ঝড়ে কমপক্ষে ৩৪ জনের নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। আহতের সংখ্যা প্রায় অর্ধশতাধিক। 

রবিবার বিকালের পর থেকেই কালো মেঘে ছেয়ে যায় ভারতের রাজধানী দিল্লির আকাশ। শুরু হয় ধূলি ঝড় ও বৃষ্টিপাত। দিল্লির একাধিক জায়গায় ১০৯ কিলোমিটার বেগে ঝড় বয়। তাতে ২ জন নিহত হয়েছে, আহত হয়েছে ১৮ জনের মতো। ঝড়ের দাপটে বিপর্যস্ত সড়ক ও ট্রেন পরিষেবা। কিছুক্ষণের জন্য ঘরোয়া ও আন্তর্জাতিক বিমান ওঠা-নামায় ব্যহত হয় দিল্লির ইন্দিরা গান্ধী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর। 

বিমানবন্দর সূত্রে খবর, প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের কারণে প্রায় ৭০ টি বিমানকে এদিন অন্য পথে ঘুরিয়ে দেওয়া হয় এবং প্রায় ২৪ টির বেশি বিমান দেরীতে চলছে বলে জানা গেছে। মেট্রো পরিষেবাও বিঘ্নিত। সব মিলিয়ে স্তব্ধ হয়ে গেছে রাজধানীর জনজীবন। 

অন্ধ্রপ্রদেশে বজ্রাঘাতে ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে অন্ধ্রপ্রদেশের শ্রীকাকুলাম জেলায় সাত জন এবং কাদাপা এলাকায় দুই জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে, আহত ৩ জন। কয়েকদিন ধরেই অন্ধ্রপ্রদেশ ও তেলেঙ্গানার বিস্তীর্ণ এলাকায় বজ্র সহ বৃষ্টিপাত শুরু হয়েছে। তবে এদিন সন্ধ্যার পর থেকে তা ভয়াবহ আকার ধার করে।
 
রবিবারের বজ্র সহ বৃষ্টিপাত ও ঝড়ের দাপটে উত্তরপ্রদেশেও ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে, আহত কমপক্ষে ২৮ জন। রাজ্যটির প্রধান সচিব (তথ্য) অবনীশ আবস্তি এই মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করে জানান কাশগঞ্জে ৪ জন, বুলন্দশহরে ২ জন এবং কনৌজ, আলিগড়, সম্বল, গাজিয়াবাদ ও নয়ডা’য় ১ জন করে মৃত্যু হয়েছে। 

পশ্চিমবঙ্গেও এদিন সন্ধ্যার পর থেকে বিভিন্ন জায়গায় বজ্র সহ বৃষ্টিপাত শুরু হয়। এতে এখনও পযৃন্ত ১২ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। আহতের সংখ্যা ১৫। রাজ্যটির হাওড়া জেলার উলুবেড়িয়ায় মৃত্যু হয়েছে পাঁচ জনের, এর মধ্যে এদিন বিকালে আম কুড়াতে গিয়ে বজ্রাঘাতে চার বালকের মৃত্যু হয়। অন্যদিকে পশ্চিম মেদিনীপুর, উত্তর চব্বিশ পরগনা ও নদীয়া জেলায় দুই জন করে নিহত হয়েছে এবং মুর্শিদাবাদ জেলায় মৃত্যু হয়েছে এক জনের।
 
প্রাকৃতিক দুর্যোগে নিহতদের পরিবারের প্রতি সমস্ত রকমের সহায়তা করার পাশাপাশি যাদের ঘর-বাড়ি ভেঙে পড়েছে বা ফসলের ক্ষতি হয়েছে তাদের কেও সহায়তার আশ্বাস দিয়েছেন রাজ্যটির মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। 

নি এম/

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক : সুকৃতি কুমার মন্ডল 

 খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

+8801711-98 15 52

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71