বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮
বুধবার, ৪ঠা আশ্বিন ১৪২৫
 
 
ভুল চিকিৎসায় বীথি সরকারের মৃত্যু
প্রকাশ: ০৩:৫৩ pm ২২-১২-২০১৭ হালনাগাদ: ০৩:৫৩ pm ২২-১২-২০১৭
 
 
 


প্রশাসনের সিলগালা করে দেওয়া মাগুরা শহরের ভায়নার মোড় এলাকায় অবস্থিত শারমিন ক্লিনিকে ভুল চিকিৎসায় বীথি সরকার নামের এক প্রসূতির মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার রাতে ওই ঘটনার পরপরই ক্লিনিকে অপারেশন করতে আসা চিকিৎসক, ক্লিনিক মালিকসহ কর্মচারীরা পালিয়ে যান। এ বিষয়ে শুক্রবার মাগুরা সদর থানায় মামলা হয়েছে।

নিহতের বাবা বিষ্ণুপদ সরকার অভিযোগ করেন, বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে মাগুরার নিজ বাড়ি শহরতলীর কেশবমোড় এলাকা থেকে তার প্রসূতি মেয়ে বীথি সরকারকে সিজারের জন্য শারমিন ক্লিনিকে ভর্তি করেন। তার মেয়ে এ সময় সম্পূর্ণ সুস্থ ছিলেন এবং তিনি একাই সিঁড়ি বেয়ে দোতলায় ওঠেন। এ ছাড়া ক্লিনিকে অন্য রোগীদের সঙ্গে হেসে হেসে কথা বলেন ও আশির্বাদ চান। বীথিকে সিজারের জন্য অপারেশন থিয়েটারে নিয়ে ইনজেকশন দেওয়ার সাথে সাথে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়। এ অবস্থায় ক্লিনিক কর্তৃপক্ষ তাদেরকে রোগীর অবস্থা সম্পর্কে কিছু না জানিয়ে এক ঘণ্টা পর মাগুরা সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক বীথি সরকারকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় রোগীর স্বজন ও স্থানীয়রা ক্লিনিকের সামনে বিক্ষোভ করলে ক্লিনিকের লোকজন পালিয়ে যান। পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে উত্তেজিত স্বজনদের নিবৃত্ত করে। পরে বিষ্ণুপদ সরকার বাদী হয়ে সদর থানায় চিকিৎসক এনামুল কবির, ক্লিনিক মালিক শারমিন নাহার ও কর্মচারী রাজুর বিরুদ্ধে মামলা করেন।

মাগুরা সদর থানার ওসি শেখ ইলিয়াস হোসেন জানান, ঘটনার খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে যায়। নিহতের বাবা সদর থানায় মামলা করেছেন। অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

মাগুরার সিভিল সার্জন মুন্সী মো. ছাদুল্লাহ বলেন, ‘কিছুদিন আগে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করে ক্লিনিকটি বন্ধ করে দেওয়া হয়। সেই বন্ধ ক্লিনিকে কীভাবে এই প্রসূতির চিকিৎসা হলো তা তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

এসএম

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71