মঙ্গলবার, ২০ নভেম্বর ২০১৮
মঙ্গলবার, ৬ই অগ্রহায়ণ ১৪২৫
 
 
বাসায় একা পেয়ে ভয়ভীতি দেখিয়ে অষ্টম শ্রেণীর মাদ্রাসার ছাত্রীকে ধর্ষণ
প্রকাশ: ০২:১৫ pm ১৬-০৮-২০১৭ হালনাগাদ: ০২:৫৯ pm ১৬-০৮-২০১৭
 
ভোলা প্রতিনিধি
 
 
 
 


ভোলার চরফ্যাশন উপজেলার শশীভূষন থানার জাহানপুর ইউনিয়নে জোর পুর্বক ভয়ভীতি দেখিয়ে বাসায় একা পেয়ে অষ্টম শ্রেণীর এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণ করার ফলে অন্ত:স্বত্ত্বার ঘটনায় মোক্তার নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।মোক্তার দক্ষিণ আইচা থানার ঢালচর ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের ভুট্টু মেম্বারের ছেলে।

সোমবার রাতে ধর্ষিতার মা বাদী হয়ে শশীভূষন থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০ ও ২০০৩ সংশোধনী ৯(১) মোতাবেক মামলা দায়ের করেন। শশীভূষন থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল বাশার এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

মামলায় বাদী অভিযোগ করেন, গত ২৭ জুন তিনি শারিরীকভাবে অসুস্থ্য হয়ে পড়লে ২৮ জুন ভোলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি হন। এ সময় তাদের দুর সর্ম্পকের আত্মীয় মোক্তার ট্রলার মেরামতের জন্য পাঁচ কপাট এলাকায় এসে তার বাড়িতে অবস্থান করেন। রাতে আমার মেয়েকে ঘরে একা পেয়ে ধর্ষক মোক্তার ভঁয়ভীতি দেখিয়ে ৫/৬ দিন ধরে জোর পুর্বক ধর্ষণ করে।

ধর্ষিতা কিশোরীর মা সুস্থ হয়ে ভোলা হাসপাতাল থেকে বাড়িতে আসলে মেয়ে তার মা’র নিকট ধর্ষনের বিষয়টি অবহিত করেন। ধর্ষক মোক্তার টের পেয়ে পালিয়ে ঢালচর চলে যায়। এ সময় ধর্ষিতাকে ভোলা নিয়ে সদর হাসপাতালে গাইনি বিভাগে চিকিৎসা করেন। কিশোরীর শারিরীক অবস্থার পরিবর্তন দেখে ৬ আগষ্ট চরফ্যাশন হাসপাতালের ডাক্তার ডা.শাহীন আরা আহম্মেদ এর নিকট নিয়ে গেলে তিনি কিশোরীর আলট্রাসনোগ্রাম করে দেখতে পান সে অন্ত:স্বত্ত্বা।

পূর্ব আত্মীয়তার জের ধরে ধর্ষিতার পিতা ইউপি সদস্য ভুট্টুর সাথে আলাপ করলে তিনি কিশোরীর গর্ভের বাচ্ছা নষ্ট করে দেওয়ার প্রস্তাব দেয়। এতে তারা রাজি না হওয়ার কারনে বিভিন্ন সময়ে প্রভাবশালী ব্যক্তি দিয়ে মোবাইল ফোনে বিষয়টি নিয়ে বাড়াবাড়ি না করার জন্য হুমকি দিয়ে আসছে।

আ এম

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71