মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০১৯
মঙ্গলবার, ১০ই বৈশাখ ১৪২৬
সর্বশেষ
 
 
আদালতের রায় উপেক্ষা 
মহাদেবপুরে সংখ্যালঘু পরিবারের জমি দখলের চেষ্টা
প্রকাশ: ০৮:৩৩ pm ২৫-০৪-২০১৮ হালনাগাদ: ০৮:৩৩ pm ২৫-০৪-২০১৮
 
নওগাঁ প্রতিনিধি:
 
 
 
 


আদালতের রায় উপেক্ষা করে নওগাঁর মহাদেবপুরে এক নিরীহ পরিবারের জমি দখল চেষ্টার খবর পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটে রবিবার বিকেলে উপজেলার সফাপুর ইউনিয়নের হামিদপুর গ্রামে। 

খবর পেয়ে ওই দিন সন্ধ্যায় মহাদেবপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

মামলা ও রায়ের কপি সূত্রে জানা গেছে, শ্রী অতুল চন্দ্র মন্ডল ও তার ৮ ভাই বাদী হয়ে কালা তাপস, নরেন্দু, শুরুজিৎ, পরিমল, বাবলু মন্ডল দেবদাস সহ ১৩২ জনের বিরুদ্ধে নওগাঁ মোকাম তৃতীয় যুগ্ম জেলা জজ আদালতে ২০০৭ সালের ৩০ মে হামিদপুর, প্রসাদপুরসহ বিভিন্ন মৌজায় ১০.৬০ ১/৪ একর জমির দাবি করে একটি বাটোয়ারা মামলা (৬/২০০৭) দায়ের করেন। নালিশী জমির পরিমান ৩০.৭১ একর। উক্ত মামলার প্রেক্ষিতে হামিদপুর মৌজার আর এস ৭০ নং খতিয়ানে হাল ৭৯৭ নং দাগে ১.৪২ একর। একই মৌজার আর এস ৬৯ নং খতিয়ানে হাল ৪৪১ নং দাগে ০.৬৬ একর, হাল ৮০৯ নং দাগে ১.১৮ একর ও হাল ৮০৫ নং দাগে ১.৩ একর জমির মধ্যে ০.৩৬ ১/৪ একর মালিক হিসেবে বাগিনের পক্ষে ১৭ এপ্রিল ২০১৬ প্রাথমিক ও গত বছরের ৩ মার্চ চুড়ান্ত এবং গত বছরের ২৯ অক্টোবর জারি ডিগ্রি এবং গত বছরের ৪ নভেম্বর ডেলেভারি পজিশন প্রদান করেন বিজ্ঞ আদালত।

ভুক্তভোগী ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উল্লেখিত জতিতে গত বছরের ২০ ডিসেম্বর পাওয়ার টিলার দিয়ে জমি চাষ ও বাগানের গাছ কাটতে গেলে বিবাদীরা বাদীদের উপর লাঠি, লোহার রড, শাবলসহ বিভিন্ন অস্ত্র সস্ত্রে সজ্জিত হয়ে অতর্কিত হামলা করে। এ ঘটনায় শ্রী অতুল চন্দ্র মন্ডল বাদী হয়ে ঘটনার দিন মহাদেবপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। উক্ত জমির প্রকৃত মালিক শ্রী অতুল চন্দ্র মন্ডল ও তার ৮ ভাই গত ১৯ এপ্রিল তাদের বোন তুলি রাণীকে উল্লেখিত জমি লিজ প্রদান করেন। উক্ত জমিতে গত রবিবার তুলি রাণী শ্রমিক দিয়ে বাঁশ কাটতে গেলে কালা তাপস, নরেন্দু, শুরুজিৎ ও তার সহযোগীরা বাধা প্রদান এবং জমি দখলের চেস্টা করেন বলে জানান তুলি রাণী।

এ ব্যাপারে অভিযুক্তদের বক্তব্য  গ্রহনের জন্য বিভিন্ন ভাবে একাধিকবার যোগাযোগের চেস্টা করেও তাদের সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি। 

মহাদেবপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মিজানুর রহমান জানান, বিষয়টি শুনেছি, লিখিত কোন অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত পূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।


এমসি/বিডি

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক : সুকৃতি কুমার মন্ডল 

 খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

+8801711-98 15 52

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71