রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮
রবিবার, ৮ই আশ্বিন ১৪২৫
 
 
মাছ চাষে দিনমজুর থেকে লাখপতি নওগাঁর নবিবর
প্রকাশ: ০৯:৫৮ pm ১২-০৬-২০১৫ হালনাগাদ: ০৯:৫৮ pm ১২-০৬-২০১৫
 
 
 


নওগাঁ প্রতিনিধি :
পুকুরে মাছ এবং মাছের রেনু পোনা উৎপাদন এবং বাজারজাত করে দিনমজুর থেকে লাখপতি হয়েছেন নবিবর প্রামানিক। তিনি নওগাঁ জেলার রানীনগর উপজেলার গোনা গ্রামের দিঘীর পূর্বপাড়ের বাসিন্দা। তার পুকুরে চাষকৃত বিভিন্ন প্রকারের মাছ ও রেনু পোনা এলাকার চাহিদা মিটিয়ে এখন বিভিন্ন জেলায়ও সরবরাহ হয়ে থাকে।
নবিবর প্রামাণিক জানান, তিনি মাছ চাষের পূর্বে মানুষের বাড়িতে দিনমজুরের কাজ করতেন। দুই মেয়ে ও দুই ছেলেসহ পাঁচ সদস্যের পরিবার চালাতে তাকে হিমশিম খেতে হতো। পরিবারে সব সময় অভাব-অনটন লেগেই থাকতো ।
আজ থেকে ১০ বছর আগের এই কাহিনী। এই অবস্থা থেকে মুক্তির পথ খুঁজতে থাকেন তিনি। পেয়েও যান। অন্যের মাছচাষের সফলতা দেখে তিনিও মাছ চাষ শুরু করবেন বলে মন স্থির করেন। অনেক কষ্ট করে তিনি প্রথমে তার গ্রামের তিন বিঘার একটি পুকুর লিজ নিয়ে শুরু করেন মাছ চাষ। সেই থেকে শুরু । আর পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে।
বর্তমানে নবিবর তার গ্রামসহ আশেপাশের গ্রামের মোট ২৫টি পুকুর লিজ নিয়ে উৎপাদন করছেন রুই, কাতলা, সিলভার কার্প, পাঙ্গাসসহ দেশী জাতের মাগুর, কৈ, শিং, পাবদা ইত্যাদি মাছ । সেই সাথে রেনু পোনা উৎপাদন এবং বিপনন। তিনি জানান, বর্তমানে তার পুকুরে হারিয়ে যাওয়া বিভিন্ন রকমের দেশি জাতের মাছ যেমন মাগুর, কৈ, শিং, পাবদা, পাঙ্গাস, কাতল, রুইসহ সব রকমের মাছের রেনু পোনা উৎপাদন করা হচ্ছে। রেনু পোনার সঙ্গে তিনি চাষ করছেন বড় বড় মাছ।
তার পুকুরে উৎপাদিত মাছ নিজের এলাকার চাহিদা পূরণ করে চালান হচ্ছে দেশের বিভিন্ন স্থানে। পাইকাররা এসে তার কাছ থেকে রেনু পোনাসহ বিভিন্ন প্রকারের মাছ কিনে নিয়ে যান। প্রতি বছর সব খরচ বাদে তিনি ৫ লাখ টাকা লাভ করছেন বলে নবিবর জানান। তার পুকুরে কর্মসংস্থান হয়েছে এলাকার বেকার ১০জন লোকের যারা কাজের পাশাপাশি শিখছেন মাছ চাষের নিয়ম।
মাছ চাষ করে অস্বচ্ছল জীবন থেকে আজ পরিবারের পাঁচ সদস্যকে নিয়ে তিনি স্বচ্ছলভাবে জীবন-যাপন করছেন। মাছ চাষ করে তিনি সন্তানদের শিক্ষিত করেছেন। বর্তমানে তার বড় ছেলে পুলিশে কর্মরত এবং ২য় ছেলে রাজশাহী বরেন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ছে।
তিনি জানান, মাছ চাষে যেমন লাভ আছে তেমনি আছে লোকসান। মাছ চাষের প্রথম দিকে তিনি কিছুই জানতেন না । আশেপাশের মাছ চাষীদের কাছ থেকে তিনি পরামর্শ নিতেন। পরবর্তিতে তিনি উপজেলা মৎস্য অফিসের সার্বিক সহযোগিতা পেয়েছেন।
নবিবর প্রামাণিক জানান, তার স্বপ্ন তিনি একদিন এই মাছ চাষ প্রকল্পকে আরও অনেক বড় করবেন। তার প্রকল্পে কাজ করবে এলাকার অসহায় দিনমজুররা। তাদের শিখাবেন কেমন করে মাছ চাষ করতে হয়।
তিনি বলেন, যদি কেউ ইচ্ছে করে আমার মত মাছ চাষ করে স্বাম্বলম্বি হবে আমি তাদের সার্বিক সহযোগিতা করব। তার স্বপ্নের প্রকল্প বাস্তবায়ন করার জন্য সরকারিভাবে আর্থিক সহযোগিতা প্রয়োজন বলেও তিনি জানান।
রাণীনগর উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা (অতিরিক্ত দায়িত্ব) মোঃ মকছেদ আলী প্রামাণিক জানান, মাছ চাষী নবিবর প্রামাণিকের সফলতার পেছনে রয়েছে তার নিরলস প্রচেষ্টা। তিনি রাণীনগর উপজেলায় সফল মানুষের এক অনন্য দৃষ্টান্ত। উপজেলা মৎস্য অফিস তাকে সব সময় সার্বিক পরামর্শ দিয়ে আসছে বলেও তিনি জানান।
সুত্র : বাসস
এইবেলা ডট কম/এইচ আর
 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71