রবিবার, ২১ জুলাই ২০১৯
রবিবার, ৬ই শ্রাবণ ১৪২৬
 
 
যশোরে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দিপনায় মহাজন্মাষ্টমী উদযাপিত
প্রকাশ: ১০:৩৬ pm ০৫-০৯-২০১৫ হালনাগাদ: ১০:৩৬ pm ০৫-০৯-২০১৫
 
 
 


যশোর প্রতিনিধি: সারা বিশ্বের সাথে একযোগে যশোরেও ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দিপনায় সনাতন ধর্ম বিশ্বাসীদের প্রাণপুরুষ  ভগবান শ্রীকৃষ্ণের আবির্ভাব তিথি, শুভ মহাজন্মাষ্টমী উদযাপিত হয়েছে।

শনিবার সনাতন ধর্ম বিশ্বাসীরা ধর্মীয় নানা মাঙ্গলিক ক্রিয়াদি ভক্ত সমাবেশ, আলোচনা সভা, বৈচিত্রময় বিশাল মঙ্গল শোভাযাত্রা, ভক্তিমূলক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, পুরস্কার বিতরণ ও অন্ন প্রসাদ বিতরণের মধ্য দিয়ে উদযাপিত হয় এ বিশেষ দিনিটি।

এদিন সূর্যোদয়ের পরপরই বিভিন্ন মন্দির ও বাসা-বাড়ীতে ভগবান শ্রীকৃষ্ণের বিশেষ পূজা ও হোমযজ্ঞ অনুষ্ঠিত হয়। সকালে যশোর টাউন হল ময়দানে ভক্ত সমাবেশ ও রওশন আলী মঞ্চে সঙ্গীতানুষ্ঠান ও আলোচনা সভা হয়।

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি যশোর ৩ সদর আসনের সংসদ সদস্য কাজী নাবিল আহমেদ বলেন, শ্রীকৃষ্ণের আবির্ভাব অন্যায়ের বিরুদ্ধে ন্যায় প্রতিষ্ঠার জন্য, সকল অশুভের বিনাশে তার আবির্ভাব সকলের জন্য এক অনন্য প্রেরণা। শ্রীকৃঞ্চের জন্মদিনে শুভশক্তির চেতনায় উদ্বুদ্ধ হতে হবে। পরমত সহিষ্ণু হয়ে সকল অনাচার অত্যাচার দুর করতে সঠিকভাবে ধর্মীয় নিয়মনীতি মেনে চলতে হবে। তিনি জন্মাষ্টমীতে সকলকে শুভেচ্ছা জানান।



বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শহীদ আবু সরোয়ার, যশোর ইন্সটিটিউটের সাধারণ সম্পাদক শেখ রবিউল আলম, সাবেক ডৌর মেয়র এসএম কামরুজ্জামান চুন্নু।

সভাপতিত্ব করেন যশোর জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি অসীম কুন্ডু। স্বাগত বক্তব্য দেন জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক দীপংকর দাস রতন। আলোচনা করেন সদর উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি দুলাল সমাদ্দার, সাধারণ সম্পাদক দেবেন্দ্র নাথ ভাস্কর। সঞ্চালনা করেন শুভঙ্কর গুপ্ত ও মৃণাল কান্তি দে। সংগীত পরিবেশন করেন তির্যক যশোরের শিল্পীবৃন্দ। অতিথি শিল্পী হিসেবে সংগীত পরিবেশন করেন ডিএসবি যশোরের ডিআইও-১ রফিকুল ইসলাম। শাস্ত্রীয় নৃত্য পরিবেশন করেন নৃত্য বিতানের শিল্পীবৃন্দ।



আলোচনা শেষে দেশ ও জাতির মঙ্গল কামনায় মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্জ্বলন করে মঙ্গল শোভাযাত্রার উদ্বোধন করেন প্রধান অতিথি কাজী নাবিল আহমেদ।

বিচিত্র সাজ-সজ্জায় শঙ্খ, উলুধ্বনী সাথে জয়ডংকা, কাসর-ঘন্টার তালে তালে বিশাল মঙ্গল শোভাযাত্রা শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে যশোর মহাশ্মশান প্রাঙ্গণে এসে শেষ হয়। এসময় বৃষ্টিকে উপেক্ষা করে জয়ডংকার তালে তালে শ্রীকৃষ্ণের বন্দনায় মেতে ওঠেন ভক্তবৃন্দ।

শোভাযাত্রাটি নীলগঞ্জ মহাশ্মশানে পৌঁছালে অভ্যাগত ভক্তবৃন্দের মাঝে প্রসাদ বিতরণের পাশাপাশি চলে আলোচনা, সংগীতানুষ্ঠান ও জন্মাষ্টমী উপলক্ষে গীতাপাঠ ও চিত্রাংকন প্রতিযোগীতায় বিজয়ীদের পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান।



দুপুরে নীলগঞ্জ মহাশ্মশানের এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহিন চাকলাদার বলেন, শ্রীকৃষ্ণের শিক্ষা হলো- সংঘর্ষ ও অন্যায়কে পরাভূত করে শান্তি প্রতিষ্ঠা করা। তিনি এই পবিত্র দিনে সকল অকল্যাণ ও অশুভ শক্তির বিরুদ্ধে অন্তর আত্মাকে জাগ্রত করার শপথ নেয়ার জন্য সকলকে আহবান জানান।
প্রধান বক্তা ছিলেন সাবেক সংসদ সদস্য পিযুষ কান্তি ভট্টাচার্য্য। বিশেষ অতিথি  ছিলেন প্রবীণ শিক্ষক তারাপদ দাস, বাংলাদেশ হিন্দু- বৌদ্ধ- খ্রীস্টান ঐক্য পরিষদ যশোর কমিটির সাধারণ সম্পাদক সন্তোষ দত্ত। সভাপতিত্ব করেন যশোর জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি অসীম কুন্ডু। স্বাগত বক্তব্য দেন জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক দীপংকর দাস রতন। বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগ নেতা মোকাররম হোসেন টিপু, মুক্তিযোদ্ধা একেএম খয়রাত হোসেন, আসাদুজ্জামান আসাদ প্রমুখ।
এখানে যশোর পূজা উদযাপন পরিষদের উদ্যোগে আয়োজিত গীতাপাঠ ও চিত্রাংকন প্রতিযোগিতায় ২শ’৩৮ জন অংষগ্রহণকারীর মধ্যে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।

এইবেলা ডট কম/পি কে/এমকে
 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক : সুকৃতি কুমার মন্ডল 

 খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

+8801711-98 15 52

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71