রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮
রবিবার, ৮ই আশ্বিন ১৪২৫
 
 
যেভাবে বুঝবেন আপনি গর্ভবতী
প্রকাশ: ০২:১৫ pm ২৪-১২-২০১৭ হালনাগাদ: ০২:১৫ pm ২৪-১২-২০১৭
 
এইবেলা ডেস্ক
 
 
 
 


নারীর জীবনের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ অধ্যায় মা হওয়া। কিন্তু গর্ভ ধারণের প্রথম কয়েক মাসে অসচেতনতার কারণে অনেকেই বুঝতে পারেন না, তিনি অন্তঃসত্ত্বা। এবার জেনে নিন সাত লক্ষণের কথা, যা থেকে আপনি বুঝতে পারবেন, আপনি গর্ভবতী কি না।     

মর্নিং সিকনেস

গর্ভবতী প্রতিটি নারীই এই সমস্যার মধ্য দিয়ে কম-বেশি যান। কেবল সকালেই নয়, দিনের যেকোনো সময়ে বমি হলে এবং বিশেষ কোনো খাবারের গন্ধে বমি পেলে ডাক্তারি পরীক্ষা করান। হয়তো এটিই আপনার গর্ভধারণের প্রথম লক্ষণ!

স্তনের ফুলে ওঠা

গর্ভধারণের প্রথম দিককার আরেকটি লক্ষণ হলো স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি ফুলে ওঠা স্তন। এছাড়াও স্তনের চামড়া নরম হয়ে গেলে কিংবা স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি বেড়ে উঠলে বুঝতে হবে আপনি গর্ভবতী। কারণ, এই সময় থেকেই শিশুকে বুকের দুধ খাওয়ানোর জন্য শরীর আপনাকে তৈরি করতে থাকে। নারীদেহে এই সময়ে এস্ট্রোজেন এবং প্রোজেস্টেরন নামক হরমোন বাড়তে থাকে যার কারণে স্তনেও দেখা যায় পরিবর্তন।

সবসময় ক্লান্ত অনুভব করা

গর্ভধারণের প্রথম দিকে আসন্ন পরিবর্তনের সঙ্গে মানিয়ে নিতে শরীরের সবচেয়ে বেশি শক্তিক্ষয় হয়। একারণেই স্বাভাবিকের চেয়ে এই সময়টিতে নারীদের ক্লান্তিজনিত সমস্যা দেখা যায় বেশি। বিশেষ করে গর্ভের ভ্রূণকে প্রয়োজনীয় পুষ্টির যোগান দিতে হৃদপিণ্ড এসময় সবচেয়ে বেশি রক্ত সরবরাহ করে। আর সেকারণেই একটু কাজেই নিজেকে মনে হবে অনেক বেশি ক্লান্ত।

তলপেটে ব্যথা

গর্ভধারণের সঙ্গে সঙ্গেই বন্ধ হয়ে যায় মাসিক। কিন্তু মাসিকের সময়ে হওয়া তলপেটে ব্যথা এই সময়েও হতে পারে। এটি হয় জরায়ুর আকার ধীরে ধীরে বড় হওয়ার কারণে।

ঘন ঘন প্রস্রাবের বেগ

জরায়ু বড় হওয়ার কারণে চাপ বাড়ে মূত্রাশয়ের উপর। এছাড়াও গোটা শরীরই যেহেতু নানা পরিবর্তনের মধ্য দিয়ে যায়, কাজ বেড়ে যায় কিডনিরও। তাই স্বাভাবিক ভাবেই ঘন ঘন প্রস্রাবের বেগ হয় এসময় নারীদের।

ক্ষুধামন্দা

গর্ভাবস্থাতেই নারীদেহের জন্য সবচেয়ে বেশি খাবারের দরকার হলেও এই সময়েই দেখা যায় ক্ষুধামন্দা। এটাও শরীরের হরমোনের পরিবর্তনের কারণে হয়ে থাকে।

পিরিয়ড না হওয়া
আগে যারা গর্ভবতী হননি, এমন অনেক নারীর ক্ষেত্রেই এ লক্ষণ সবার আগে ধরা পড়ে। এটি গর্ভবতী হওয়ার অন্যতম লক্ষণও বটে।

আবেগের তারতম্য

গর্ভধারণের কারণে নারীদের কেবল শারীরিক পরিবর্তনের মধ্য দিয়েই যেতে হয় না, বদলে যায় গোটা মনোজগৎও। আর তাই হাসিখুশি মানুষটি যদি হঠাৎ করেই ভুগতে শুরু করেন বিষণ্ণতায়, কিংবা একটুতেই যদি নিয়ন্ত্রণ হারান নিজের উপর থেকে, তাহলে দ্রুত যান ডাক্তারের কাছে।

এই লক্ষণগুলো একসঙ্গে দেখা দিলে অবশ্যই ডাক্তারি পরীক্ষা করান। নিজের গর্ভধারণের কথা জানুন সময়মতো, থাকুন সচেতন।

নি এম/

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71