বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮
বুধবার, ৪ঠা আশ্বিন ১৪২৫
 
 
রেললাইনের উপর কাপড়ের দোকান, ঝুঁকিতে ট্রেন চলাচল
প্রকাশ: ০৪:২০ pm ২১-১২-২০১৭ হালনাগাদ: ০৪:২০ pm ২১-১২-২০১৭
 
নীলফামারী প্রতিনিধি:
 
 
 
 


শীতের আগমনের সাথে সাথে নীলফামারীর সৈয়দপুরে জমে উঠেছে শীতের কাপড়ের দোকান। আর এসব দোকানগুলো রেললাইনের উপর ও রেললাইন ঘেঁষে বসায় ট্রেন চলাচল ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়ছে।

সারাদিন এসব পুরনো কাপড়ের দোকানে ক্রেতাদের ভিড় লক্ষ করা যাচ্ছে। ফলে যে কোন সময় ট্রেন দুর্ঘটনার সম্ভাবনা থাকলেও রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ কোন ব্যবস্থা নিচ্ছেন না। প্রতিদিন সৈয়দপুর থেকে উভয় পথে আন্তনগর কয়েকটি ট্রেন চলাচল করে থাকে। ট্রেন আসার সময় দোকানীরা মালামাল সরিয়ে নেন। ট্রেন চলে গেলে আবার দোকান বসায়।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন দোকানী জানান, প্রতিদিন দোকান প্রতি আমাদের টাকা দিতে হয় বখরা। না দিলে বসতে দেওয়া হয় না। কে টাকা নেয় সে কথা বলতে চাননি তারা।

সূত্র জানায়, রেললাইনের উভয় পার্শ্বে কম করে হলেও ২০ ফুট করে ফাঁকা রাখার বিধান রয়েছে। সে অনুযায়ী রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ রেলওয়ের উভয়ে পাশে পর্যাপ্ত জায়গা রেখে সীমানা নির্ধারণ করে রেখেছে। কিন্তু এসব জায়গাও চলে যাচ্ছে অবৈধ দখলদারদের কবলে। সৈয়দপুর শহরের ২নং রেলগেটটি অত্যন্ত জনবহুল এলাকায় অবস্থিত। ফলে ওই স্থানে প্রায়ই ট্রেনে কাটা পড়ে প্রাণহানির ঘটনা ঘটে। রেললাইনের উপরে বসানো হয় পুরতান কাপড়ের দোকান। তারা অবৈধভাবে ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে। ফলে রেলপথে এসব দোকান ঘিরে ভিড় বাড়ছে। ভয়াবহ মানুষের জটলায় ট্রেন চলাচল ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়ছে।

সৈয়দপুর রেলওয়ে ষ্টেশন মাষ্টার আবুল কাশেম জানান, চালকরা ট্রেন চলাচল নিরাপদ করতে ২ নং রেলগেটের দোকানপাট উচ্ছেদের কথা বলে আসছে। ট্রেন চলাচলের সুবিধা নিশ্চিত ও দূর্ঘটনার আশংকার কথা ভেবে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।

সৈয়দপুর জিআরপি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) একেএম লুৎফর রহমান বলেন, রেললাইনের উপর পুরতান কাপড় মার্কেট বসায় ট্রেন চলাচল ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে উঠেছে। উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষে আদেশ পেলেই উচ্ছেদ অভিযান চলানো হবে বলে তিনি জানান। তিনি বলেন, পুরাতন কাপড়ের দোকানগুলো রেললাইন থেকে সরিয়ে নেওয়ার জন্য ইতোমধ্যে দোকানীদের মৌখিকভাবে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

এম/এসএম

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71