রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮
রবিবার, ৮ই আশ্বিন ১৪২৫
 
 
লংগদুর ঘটনায় ক্যানবেরায় প্রতিবাদ সমাবেশ
প্রকাশ: ১০:৪৫ pm ১৫-০৬-২০১৭ হালনাগাদ: ১০:৪৫ pm ১৫-০৬-২০১৭
 
 
 


প্রবাস ডেস্ক:  লংগদুর বর্বরোচিত ঘটনার প্রতিবাদে ক্যানবেরায় অস্ট্রেলিয়ান ফেডারেল পার্লামেন্টের সামনে আদিবাসী বাংলাদেশি অস্ট্রেলিয়ানদের উদ্যোগে এক প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

গত ১৩ জুন মঙ্গলবার বেলা ১১টায় এই প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

উল্লেখ্য, গত ২ জুন স্থানীয় এক যুবলীগ নেতার মৃত্যুকে কেন্দ্র করে লংগদুর আদিবাসী জনগণের ওপর নারকীয় হামলা চালিয়ে তাদের কয়েক শ বাড়িঘর জ্বালানো ও ৭০ বছরের একজন বৃদ্ধাকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা করা হয়। আদিবাসী লোকজনের ওপর এই অন্যায়ের প্রতিবাদে আয়োজন করা হয় এই সমাবেশ।


সিএইচটিআইজেএএ (Chittagong Hill Tracts Indigenous Jumma Association Australia) আয়োজিত এই সমাবেশে আদিবাসী বাংলাদেশি অস্ট্রেলিয়ানদের পাশাপাশি সমতলের অস্ট্রেলিয়াপ্রবাসী বাংলাদেশিরাও একাত্মতা প্রকাশ করেন।

বাংলাদেশে আদিবাসীদের ওপর জাতিগত নিপীড়ন ও মানবাধিকার লঙ্ঘনের প্রতিবাদে সংহতি জানাতে উপস্থিত ছিলেন অস্ট্রেলিয়ান সিনেটর লি রিয়ানন ও লিজা সিং।

তারা পার্বত্য চট্টগ্রামে এই চরম মানবাধিকার লঙ্ঘনের জন্য গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেন এবং বাংলাদেশ সরকারকে এর পূর্ণ তদন্ত করার অনুরোধ জানান।

পাশাপাশি ২০ বছরের পুরোনো পার্বত্য শান্তি চুক্তির পূর্ণাঙ্গ বাস্তবায়ন ও আদিবাসীদের ওপর চলমান সকল বৈষম্য দূর করতে তারা বাংলাদেশ সরকারের প্রতি আহ্বান জানান।


সভায় আদিবাসী প্রবাসীদের মধ্য থেকে বক্তব্য রাখেন কবিতা চাকমা, অভিলাষ ত্রিপুরা, গসিরাম রেমা, কুলুত্তম চাকমা, তনু মুরং, বিনোতা ধামাই, বিশ্বজিৎ, সানু মারমা, সুফিয়া হিল, অজয় চাকমা ও পুলক রেমা প্রমুখ।


তারা লংগদু ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত ও মুক্তিযুদ্ধের মূল নীতি অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ার জন্য দেশের পাহাড়ি আদিবাসীসহ সকল মানুষের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সরকারের কাছে দাবি জানান।


সমাবেশ থেকে সকল সংখ্যালঘু নিপীড়ন বন্ধ এবং সেই সঙ্গে ধর্মীয় পরিচয়কে বড় করে না দেখে মানুষকে মানুষ হিসেবে বিবেচনা করার চেতনা তৈরির মাধ্যমে সত্যিকারের গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করার আহ্বান জানানো হয়।

সমাবেশে বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রীর কাছে প্রেরিত লিখিত স্মারকলিপি পড়ে শোনানো হয়। সমাবেশ শেষে এই স্মারকলিপি অস্ট্রেলিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনারের কাছে হস্তান্তর করা হয়। হাইকমিশনের পক্ষ থেকে স্মারকলিপি প্রধানমন্ত্রীর কাছে পৌঁছানো হবে বলে আশ্বাস দেওয়া হয়।

 

এইবেলাডটকম/পিসিএস 

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71