শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮
শনিবার, ৩রা অগ্রহায়ণ ১৪২৫
 
 
শেষ হয়ে যাচ্ছে অশ্বিনী কুমার হলের নামটি
প্রকাশ: ০৩:২১ pm ২২-০৫-২০১৫ হালনাগাদ: ০৩:২১ pm ২২-০৫-২০১৫
 
 
 


বরিশাল:প্রায় শত বছরের ঐতিহ্যে লালিত বরিশাল শহরের প্রাণ কেন্দ্রে অবস্থিত অশ্বিনী কুমার হলটি আজও টাউন হল ট্রাষ্টি কমিটি দখলমুক্ত করতে পারেনি এবং শেষ হয়ে গেল অশ্বিনী কুমার হলের নামটিও ।  

ইতিহাসের স্বাক্ষী এক বিঘা জমির উপর নির্মিত এ স্থাপনাটি কেদার নাখ বাবুর নিকট থেকে বরিশালের চার ঋষি পুরুষ এ,কে ফজলুল হক, অশ্বিনী কুমার দত্ত, হারনাথ ঘোষ এবং ডা. তারিনী কুমার দত্ত  তৎকালীন চার হাজার টাকা মূল্যে ১৩২৭ সালের ২৮ শে আশ্বিন তারিখ সম্পাদিত রেজিষ্ট্রিকৃত কবলা মূলে খরিদ করেন।

সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডের ঐতিহ্য ধরে রাখতে এবং বরিশাল শহরের সর্ব সাধারনের উপকারার্থে সভা সমিতি, অধিবেশন, আমোদ-প্রমোদ, অনুষ্ঠান ও জনহিতকর কার্যের জন্য জেলার সর্বস্তরের জনসাধারনের চাঁদায় টাউন হল নির্মান করা হয়।

সূত্র মতে, টাউন হলের নির্মান কাজ  মহাত্মা অশ্বিনী কুমার দত্তের জীবনাবসান হলে তার স্মৃতির সম্মানে এ,কে, ফজলুল হকের প্রস্তাবে এবং সর্ব সম্মতিক্রমে অশ্বিনী কুমার  হল নাম করন করা হয়। পরবর্তী সময়ে ১৯৩০ সালের ২৫ ফেব্রয়ারী অশ্বিনী কুমার টাউন হল ট্রাষ্টি গঠন করা হয়। তখন ৬১ সদস্য বিশিষ্ট ট্রাষ্টি কমিটির মধ্য থেকে ১১ সদস্য বিশিষ্ট কার্য নির্বাহী কমিটিকে টাউন হল পরিচালনার জন্য দায়িত্ব অর্পন করা হয়।

কিন্তু ট্রাস্টি দলিল অনুযায়ী কার্য নির্বাহী কমিটি যথাযথ দায়িত্ব পালন করতে তারা ব্যর্থ হয়। শুরু হয় নানা ষড়যন্ত্র। কে হবে টাউন হলের মালিক, ট্রাষ্টি বোর্ড নাকি পৌরসভা। এনিয়ে মামলা পর্যন্ত হয়েছে। এক পর্যায়ে জেনারেল আইয়ুব খানের সামরিক শাসনামলে ১৯৫৮ সালের ২৭ শে অক্টোবর বরিশার পৌরসভা টাউন হলের  নিয়ন্ত্রন ভার দখল করে নেন। এরপর ষড়যন্ত্র নতুন পথে মোড় নেয়।  এ ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে ঝড় উঠলো বরিশালের সর্বস্তরের ছাত্র জনতার মাঝে। দীর্ঘদিন বিষয়টি অমিমাংসিত  থেকে গেল। শুরু হয় মুক্তিযুদ্ধ। দেশ স্বাধীন হল।

আজ দীর্ঘ ৫৭ বছরেও কোন ফয়সালা হলো না। বর্তমানে ট্রাষ্টি বোর্ডের ব্যাপারে কেউ নারাচারাও করছে না। দু:খজনক হলেও সত্য সম্প্রতি অশ্বিনী কুমার হলের নামটি সাদা  রংয়ের আবরনে ঢেকে গেছে। এ নিয়ে কারো প্রতিবাদ নেই।

 

এইবেলা ডটকম/পিসি

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71