রবিবার, ২৪ জুন ২০১৮
রবিবার, ১০ই আষাঢ় ১৪২৫
 
 
শ্যামনগরে বাল্য বিবাহ বন্ধ করলো ৭ম শ্রেণির ছাত্রী
প্রকাশ: ০৮:৫০ pm ৩১-১০-২০১৭ হালনাগাদ: ০৮:৫০ pm ৩১-১০-২০১৭
 
শ্যামনগর প্রতিনিধি:
 
 
 
 


সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলায় বাল্য বিবাহ বন্ধ করলো স্কুল ছাত্রী মুসলিমা পারভীন। সে সুন্দরবন মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে ৭ম শ্রেণিতে অধ্যায়নরত। 

জানা যায়, সম্প্রতি কয়েকদিন ধরে সুন্দরবন মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেণির ছাত্রী ও তার খালাতো বোন ফাইমা খাতুনের বিবাহ নিয়ে কথাবার্তা হয় বাড়ীতে। এ বিষয়টি সে জানতে পেরে বিবাহ বন্ধ করার প্রস্ততি নেয়। সে স্কুলে এসে তার ক্লাসের বান্ধবীদের সাথে বিষয়টি আলোচনা করে এবং এক পর্যায়ে কয়েকজন বান্ধবী মিলে তার খালার বাড়ী মুন্সিগঞ্জ চলে যায়। এর পর সে খালা ও খালা আম্মা সহ অন্যান্যদের বাল্য বিবাহের ক্ষতিকর দিক সম্পর্কে অবহিত করে এবং শেষ পর্যন্ত বলে যদি বিবাহ বন্ধ না হয় তাহলে তার শ্রেণি শিক্ষকের সাথে বিষয়টি অবহিত করবেন ও এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণের কথা বলবেন। এটি শোনার পর তার খালাত বোন ফাইমার বিবাহ বন্ধ করতে বাধ্য হয় পরিবারের লোকজন।

সোমবার বিদ্যালয়ে বাল্য বিবাহ প্রতিরোধ সহ অন্যান্য বিষয়ে এক মতবিনিময় সভায় বিষয়টি তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন ছাত্রী ফাইমা খাতুন। এ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসের উপজেলা একাডেমিক সুপারভাইজার মিনা হাবিবুর রহমান। 

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক প্রশান্ত কুমার বৈদ্যের সভাপতিত্বে এবং সাংবাদিক রনজিৎ বর্মনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ভাব বাংলাদেশের সিনিয়র প্রোগ্রাম ম্যানেজার এম এ আলিম খাঁন। 

মতবিনিময় সভায় ভাব বাংলাদেশের পক্ষ থেকে বাল্য বিবাহ প্রতিরোধের জন্য তাকে পুরস্কৃত করার জন্য ঘোষনা করা হয়। এবং এ ধরনের কার্যক্রম অন্য কোন শিক্ষার্থী করলে তাকেও পুরস্কৃত করা হবে বলে জানানো হয়।

আর/এসএম

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71