বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮
বুধবার, ১১ই আশ্বিন ১৪২৫
 
 
সাত খুন মামলার হাইকোর্টের রায় পড়া শুরু
প্রকাশ: ১০:৫৫ am ২২-০৮-২০১৭ হালনাগাদ: ১০:৫৫ am ২২-০৮-২০১৭
 
এইবেলা ডেস্ক
 
 
 
 


নারায়ণগঞ্জে আলোচিত সাত খুন মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামিদের করা জেল আপিল ও রাষ্ট্রপক্ষে করা ডেথ রেফারেন্সের (মৃত্যুদণ্ড অনুমোদন) ওপর হাইকোর্টের রায় পড়া শুরু হয়েছে।

 বিচারপতি ভবানী প্রসাদ সিংহ ও বিচারপতি মোস্তফা জামান ইসলাম সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টায় এ রায় পড়া শুরু করেছেন।

এর আগে গত ২৬ জুলাই আসামিদের করা আপিল ও ডেথ রেফারেন্সের ওপর শুনানি শেষে ১৩ আগস্ট রায়ের জন্য দিন ধার্য করেছিলেন হাইকোর্ট। তবে ওইদিন রায় ঘোষণার জন্য প্রস্তুত না হওয়ায় পরে ২২ আগস্ট রায়ের দিন পুননির্ধারণ করা হয়। এরই ধারাবাহিকতায় হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট বেঞ্চের দৈনন্দিন কার্যতালিতায় আজ এ মামলাটি রায়ের জন্য এক নম্বরে রয়েছে।

চলতি বছরের ৮ ফেব্রুয়ারি নারায়ণগঞ্জের আলোচিত সাত খুন মামলায় মৃত্যুদণ্ডাদেশপ্রাপ্ত নুর হোসেনসহ আসামিদের নিয়মিত ও জেল আপিল শুনানির জন্য গ্রহণ করেন হাইকোর্ট। নারায়ণগঞ্জের জেলা ও দায়রা জজ সৈয়দ এনায়েত হোসেন গত ১৬ জানুয়ারি রায়ে র্যাাবের সাবেক কর্মকর্তা (বরখাস্ত) লে, কর্নেল তারেক সাঈদ মোহাম্মদ, সাবেক ওয়ার্ড কাউন্সিলর নূর হোসেনসহ ২৬ জনকে মৃত্যুদণ্ড দেন আদালত। বাকি নয়জনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দেওয়া হয়। ওই রায়ের বিরুদ্ধে মৃত্যুদণ্ডদেশপ্রাপ্ত ২৬ জনের মধ্যে গ্রেফতার ও আত্মসমর্পণ করে কারাগারে থাকা ২০ জন হাইকোর্টে নিয়মিত ও জেল আপিল করেন। পলাতক ৬ জন আপিল করেনি।

সাত খুন মামলায় মৃত্যুদন্ডাদেশপ্রাপ্ত আসামিদের  আপিল ও ডেথ রেফারেন্সের শুনানি শুরু হয়ে ২৬ জুলাই যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষ হয়। ৩৩ কার্যদিবসে রাষ্ট্রপক্ষে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম, ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল আবদুল মান্নান মোহন, জাহিদ সারোয়ার কাজল ও সহকারি অ্যাটর্নি জেনারেল বশির আহমেদ এবং আসামিপক্ষে ছিলেন মনসুরুল হক চৌধুরী ও এসএম শাহজাহান শুনানি করেন। 

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের কাউন্সিলর নজরুল ইসলাম, আইনজীবী চন্দন সরকারসহ সাতজনকে ২০১৪ সালের ২৭ এপ্রিল ফতুল্লার লামাপাড়া থেকে অপহরণ করা হয়। তিন দিন পর শীতলক্ষ্যা নদীতে তাদের লাশ পাওয়া যায়। নিহত অন্যরা হলেন নজরুলের বন্ধু মনিরুজ্জামান স্বপন, তাজুল ইসলাম, লিটন, গাড়িচালক জাহাঙ্গীর আলম ও চন্দন সরকারের গাড়িচালক মো. ইব্রাহীম। ওই ঘটনায় নিহত নজরুলের স্ত্রী সেলিনা হোসেন বিউটি ও চন্দন সরকারের জামাতা বিজয় কুমার পাল ফতুল্লা মডেল থানায় দুটি মামলা করেন।

প্রচ
 

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71