শুক্রবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯
শুক্রবার, ১০ই ফাল্গুন ১৪২৫
 
 
সিরিয়ায় বিষাক্ত গ্যাস আক্রমণে নিহত ৭০
প্রকাশ: ০৩:৪২ pm ০৮-০৪-২০১৮ হালনাগাদ: ০৩:৪২ pm ০৮-০৪-২০১৮
 
এইবেলা ডেস্ক
 
 
 
 


সিরিয়ার পূর্ব ঘুটার বিদ্রোহী অধ্যুষিত দৌমা শহরে বিষাক্ত গ্যাস আক্রমণের ফলে অন্তত ৭০ জন নিহত হয়েছেন বলে উদ্ধারকর্মী ও চিকিৎসকরা বলছেন। স্বেচ্ছাসেবী উদ্ধারকারী সংস্থা 'হোয়াইট হেলমেট' একটি বেজমেন্টে মরদেহের ছবিসহ টুইট করে এই তথ্য জানায়। টুইটে মৃতের সংখ্যা বাড়ার সম্ভাবনা কথাও জানায় সংস্থাটি।
 
তবে এই তথ্য অন্য কোনো উৎস থেকে স্বাধীনভাবে যাচাই করা সম্ভব হয়নি। সিরিয়া সরকার অবশ্য রাসায়নিক হামলার এই অভিযোগকে "অতিরঞ্জন" বলে দাবী করেছে।
 
সিরিয়ার হাসপাতালের সাথে কাজ করা যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক দাতব্য সংস্থা ‘ইউনিয়ন অব মেডিক্যাল রিলিফ অর্গানাইজেশন্স’ দামাস্কাস রুরাল স্পেশালিটি হাসপাতালের বরাত দিয়ে বিবিসিকে নিশ্চিত করেছে যে, ৭০ জন নিহত হয়েছেন। নিহতদের অধিকাংশ নারী ও শিশু।
 
যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, "নিজেদের লোকদের ওপর রাসায়নিক অস্ত্র দিয়ে আক্রমণ করার ইতিহাস রয়েছে রাশিয়ার। অগণিত সিরিয়ানদের ওপর রাসায়নিক হামলা করার দায় নিতে হবে রাশিয়াকে।"
 
সরকার বিরোধী ‘ঘুটা মিডিয়া সেন্টার’ টুইট করে জানিয়েছে, এক হাজারের বেশি মানুষ এই রাসায়নিক হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। একটি পিপের মধ্যে করে হেলিকপ্টার থেকে একটি বোমা ফেলা হয় সেখানে। ঐ পিপেতে বিষাক্ত রাসায়নিক সারিন ছিল বলে বলা হচ্ছে।
 
অপর দিকে রাসায়নিক হামলার অভিযোগ ওঠার পর সিরিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা সানা বলেছে, ‘‘জাইশ আল-ইসলাম সন্ত্রাসীরা পতনের মুখে আছে। তাই তাদের সমর্থিত সংবাদ মাধ্যমগুলো সিরিয়ান আরব সেনাবাহিনীর অভিযান থামানোর উদ্দেশ্যে গ্যাস আক্রমণের মিথ্যা খবর ছড়াচ্ছে।’’

উল্লেখ্য, সিরিয়ার পূর্ব ঘুটার শেষ বিদ্রোহী অধ্যুষিত শহর দৌমা। বর্তমানে রাশিয়া সমর্থিত সিরিয়ান সরকারি সেনাবাহিনী ঘেরাও করে আছে শহরটি। বিদ্রোহীদের সাথে মস্কোর একটি আলোচনা বিফল হলে শুক্রবার থেকে তীব্র মাত্রার অভিযান শুরু হয় সেখানে। ফেব্রুয়ারিতে শুরু হওয়া অভিযানে অন্তত ১৬০০ মানুষ নিহত হয়েছে আর আহত হয়েছে হাজারেরও বেশী। সূএ: বিবিসি।

নি এম/

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক : সুকৃতি কুমার মন্ডল 

 খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

+8801711-98 15 52

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71