মঙ্গলবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮
মঙ্গলবার, ৩রা আশ্বিন ১৪২৫
 
 
সিলেটের জগন্নাথ জিউড় আখড়ায় ককটেল নিক্ষেপ
প্রকাশ: ১১:১১ am ০৪-০৮-২০১৭ হালনাগাদ: ১১:১১ am ০৪-০৮-২০১৭
 
 
 


সিলেটের জিন্দাবাজারের শ্রী শ্রী জগন্নাথ জিউড় আখড়ায় কীর্তন চলাকালে ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় কোন হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। শুক্রবার রাত ১টা ৩৯ মিনিটে মন্দিরে ককটেল ছোড়ে দুর্বৃত্তরা। 

প্রত্যক্ষদর্শী ও ভক্তরা জানায়, ককটেল বিস্ফোরণের সময় মন্দিরে অষ্টপ্রহর কীর্তন চলছিল। গেটের বাইরে থেকে দুর্বৃত্তরা ককটেল নিক্ষেপ করে, যা নাটমন্দিরের কাছে এসে বিস্ফারিত হয়। এ সময় কীর্তনে আসা হাজার হাজার ভক্তদের মনে ভয় ও আতংক ছড়িয়ে পড়ে। তবে ককটেল বিস্ফোরণেও বন্ধ হয়নি কীর্তন।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গৌছুল আলম বলেন, সিসিটিভি ফুটেজ দেখে সন্দেহভাজনদের শনাক্ত করার কাজ শুরু করা হয়েছে।

গৌছুল আলম জানান, ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনায় এমুহূর্তে দুজনকে শনাক্ত করা সম্ভব হয়েছে। তিনি আরো জানান, ছবিতে টি-শার্ট পড়া এক যুবক প্রথমে গেট দিয়ে আখড়ায় প্রবেশ করে কিছুক্ষণ ঘুরাঘুরির পর বের হয়ে যায়। তার কিচ্ছুক্ষণ পর আরেকজন ফুলহাতা শার্ট পড়া যুবক আখড়ায় প্রবেশ করে এবং গেটে অবস্থান নেয়। তার কিছুক্ষণ পর প্রথম যুবক হাত নেড়ে ইশারা করার সঙ্গে সঙ্গে গেটের বাইরে থেকে ছোঁড়া ককটেল আখড়ার ভেতরে নাট মন্দিরের কাছে বিস্ফোরিত হয়।

মন্দিরের সাধারণ সম্পাদক প্রলয়কান্তি দেব বেণু বলেন, এই হামলা একটা সাম্প্রদায়িক হামলা, দেশকে অসাম্প্রদায়িক চেতনায় এগিয়ে যেতে বাধা প্রদানই তাদের মূল উদ্দেশ্য।

মহানগর পূজা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক রজত কান্তি গুপ্ত বলেন,  মন্দিরে কীর্তন চলাকালে এমন হামলা কোন বিচ্ছিন্ন ঘটনা নয়; এটি একটি পরিকল্পিত। সাম্প্রদায়িক উসকানি সৃষ্টির জন্যই এমন ঘটনা ঘটে থাকতে পারে বলে তিনি মনে করেন, সামনে জন্মাষ্টমী উৎসব রয়েছে, সেখানে এর প্রভাব ফেলতেই প্রতিক্রিয়াশালী জঙ্গিদের এমন অপচেষ্টা সফল হবে না বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

বিএম/

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71