বৃহস্পতিবার, ২৭ জুন ২০১৯
বৃহঃস্পতিবার, ১৩ই আষাঢ় ১৪২৬
 
 
সিলেটে হিন্দু জোড়া খুনের 'মূলহোতা' গ্রেফতার
প্রকাশ: ০৪:৫১ pm ০৫-০৪-২০১৮ হালনাগাদ: ০৫:৪৪ pm ০৫-০৪-২০১৮
 
সিলেটে প্রতিনিধি
 
 
 
 


সিলেটের ওসমানীনগরে গণধর্ষণের পর শিশু সন্তানসহ দিপু মালাকার (৩৫) নামে নারীকে হত্যার ঘটনায় চার ঘাতকের অন্যতম ইজিবাইক চালক রিয়াজকে (২০) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার সকালে নেত্রকোনার কেন্দুয়া থেকে তাকে গ্রেফতার করেন ওই মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ওসমানীনগর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) এসএম মাইন উদ্দিন।

পুলিশ জানায়, ঘটনার মূল পরিকল্পনাকারী গ্রেফতার রিয়াজ (২০) ময়মনসিংহের গৌরীপুরের কালীজুড়ি গ্রামের আবুল মিয়ার ছেলে। সে ওসমানীনগরের গদিয়ারচর এলাকায় বসবাস করে আসছিল।

এর আগে গত মঙ্গলবার এই জোড়া খুনের সাথে সম্পৃক্ত সন্দেহে আরো ৩ ব্যক্তিকে আটক করা হয়। ইতোমধ্যে গ্রেপ্তার জখলু মিয়া(২২), নজরুল ইসলাম (২৭) ও জয়নাল মিয়া (২৭) হত্যার দায় স্বীকার করে নিজেরা জড়িত বলে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন।

তিনি বলেন, আদালতে ৩ জনের স্বীকারোক্তি থেকে মূল পরিকল্পনাকারীর নাম বেরিয়ে আসে। এ অনুযায়ী পুলিশ কেন্দুয়ায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করে। এর আগে গত সোমবার এ মামলার ৩ আসামিকে পুলিশ গ্রেপ্তার করলে মঙ্গলবার তারা আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন। জবানবন্দিতে তারা স্বীকার করেন ৪ জন মিলে জোড়া খুনের ঘটনা ঘটায়।

ওসমানীনগর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) এসএম মাইন উদ্দিন রিয়াজকে গ্রেফতারের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, সে ছিল ঘটনার মূল পরিকল্পনাকারী। 

উল্লেখ্য, গত ১৭ মার্চ রাতে ওসমানীনগর উপজেলার ব্যবসার প্রাণকেন্দ্র গোয়ালাবাজার থেকে ৪ দুর্বৃত্ত হবিগঞ্জের মাধবপুরের মালাকারপাড়ার মৃত অমিত মালাকারের স্ত্রী দীপু মালাকার (৪০) ও তার ছেলে বিকাশ মালাকারকে (৮) অপহরণ করে। পরে অটোরিকশা দিয়ে তাদের নিয়ে যাওয়া হয় একারাই হাওরে। রাতভর হাওরে দীপু মালাকারকে ধর্ষণ করে। এ সময় ছেলে অমিত মালাকার দেখে ফেললে তাকে গলাটিপে হত্যা করে। ধর্ষণ শেষে দীপু মালাকারকেও হত্যা করে কচুরীপানা দিয়ে চাপা দিয়ে ধর্ষকরা পালিয়ে যায়।

ওইদিন রাতেই নিহতদের স্বজনরা এসে পরিচয় সনাক্ত করেন এবং নিহতের ছেলে বিজয় মালাকার বাদী হয়ে অজ্ঞাত কয়েক জনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা করেন।

নি এম/

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক : সুকৃতি কুমার মন্ডল 

 খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

+8801711-98 15 52

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71