বৃহস্পতিবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮
বৃহঃস্পতিবার, ২৯শে অগ্রহায়ণ ১৪২৫
 
 
সুনামগঞ্জের জেএসসি ও জেডিসি পরীক্ষার প্রথম দিনেই অনুপস্থিত ১৭৭
প্রকাশ: ১১:২০ am ০২-১১-২০১৮ হালনাগাদ: ১১:২০ am ০২-১১-২০১৮
 
সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি 
 
 
 
 


সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারে জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট ও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট পরীক্ষার প্রথম দিন অতিবাহিত হয়েছে। 

বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত জেএসসিতে বাংলা প্রথম পত্র ও জেএসডিতে কোরান মাজিদ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

তবে উপজেলার কলাউড়া ফাজিল মাদ্রাসা কেন্দ্রে জেডিসি পরীক্ষায় ছাত্র-ছাত্রীরা পরীক্ষায় অসদুপায় অবলম্বনে হাত বাড়িয়েছে। নকলে সহযোগিতা করছে কিছু সংখ্যক শিক্ষক বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। 
স্থানীয়রা ও পরীক্ষা দেখতে আসা মানুষের অভিযোগ জেডিসি পরীক্ষায় এ কেন্দ্রে অনৈতিক কাজে সহযোগিতা করছে কিছু সংখ্যক শিক্ষক।

দোয়ারাবাজার মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মেহেরউল্লাহ জানান, ২১টি মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও ১০টি মাদ্রাসা থেকে এবার ৩হাজার ৮শত ৮৯জন শিক্ষার্থী জেএসসি ও জেএসডি পরীক্ষায় অংশ নেওয়ার কথা। শান্তিপূর্ণ পরীক্ষা গ্রহণের লক্ষে দোয়ারাবাজার উপজেলায় ৩টি কেন্দ্র নির্ধারন করা হয়েছে। ৩হাজার ৮শত ৮৯জনের মধ্যে বৃহস্পতিবার অনুপস্থিত ছিল ১৭৭জন। কলাউড়া মাদ্রাসা কেন্দ্রে নকলের বিষয়ে তিনি বলেন এখন সৃজনশীল পরীক্ষা নকলের সুযোগ নেই তবু কোন শিক্ষক সহযোগিতা করছে সুনির্দিষ্ট করে বললে তার বিরুদ্ধে শাস্তিমুলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে। প্রথম দিনের জেএসসি,জেডিসি পরীক্ষা সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

নকল করার অভিযোগ আমলে নেয়নি কেন্দ্রের সচিব মাওলানা কালিম উল্লাহ। কেন্দ্রে তত্বাবধায়ক ও উপজেলা সহকারী প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আবু রায়হান বলেন আমি জরুরী কাজে আমাদের স্যার শিক্ষা অফিসার বদলীজনিত কারণে আজকে বিদায় নিয়ে চলে যাবেন তাই ১২টার সময় দোয়ারা বাজার অফিসে চলে আসছি,আগামী দিন থেকে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার কাজী মহুয়া মমতাজ জানান, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে পরীক্ষা অনুষ্ঠানের জন্য সকল ধরনের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। কোন ছাত্র-ছাত্রী নকলের সাথে জড়িত থাকলে সাথে সাথে তাকে বহিষ্কার করা হবে। এছাড়াও শিক্ষকদেরও তিনি সতর্ক করেন।

নি এম/জাহাঙ্গীর 

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71