শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০১৯
শুক্রবার, ৬ই বৈশাখ ১৪২৬
সর্বশেষ
 
 
সুনীল হত্যার অভিযোগপত্রে  ১২ জঙ্গি
প্রকাশ: ০৮:৫৬ am ১৬-১১-২০১৭ হালনাগাদ: ০৮:৫৯ am ১৬-১১-২০১৭
 
নাটোর প্রতিনিধি
 
 
 
 


নাটোরের বড়াইগ্রামের সুনীল গোমেজ হত্যা মামলায় ১২ জেএমবির নামে অভিযোগপত্র দিয়েছে পুলিশ, যাদের সাতজনই ইতিমধ্যে কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছেন। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পুলিশ পরিদর্শক আব্দুল হাই বুধবার নাটোরের বড়াইগ্রাম আমলী আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

অভিযোগপত্র দাখিলের আগে এ উপলক্ষে নিজ কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন নাটোরের পুলিশ সুপার বিপ্লব বিজয় তালুকদার।

সংবাদ সম্মেলনে এসপি বিপ্লব বলেন, এই মামলায় গ্রেপ্তার হওয়া রাজীব গান্ধি এ হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছেন।

“তার জবানবন্দি ও অন্যান্য চাঞ্চল্যকর জঙ্গি হামলা ও হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তার হওয়া আসামিদের দেওয়া জবানবন্দি পর্যালোচনা করে সুনীল গোমেজ হত্যার রহস্য উন্মোচন করা হয়েছে।”

অভিযোগপত্রের আসামিরা হলেন- মো. তামিম চৌধুরী ওরফে তালহা ওরফে আবু দুজানা আল বাঙ্গাল (৩২), সরোয়ার জাহান ওরফে আসিফ ওরফে আজোয়াফ বিন আব্দুল্লাহ ওরফে মানিক (৩২), মামুনুর রশিদ ওরফে রিপন (৩০), জাহিদুল ইসলাম ওরফে মেজর জাহিদ (৩৯), শরিফুল ইসলাম খালিদ (২৬), নুরুল ইসলাম ওরফে মারজান (২৩) , জাহাঙ্গীর হোসেন ওরফে আদিল ওরফে সুবাস ওরফে শান্ত ওরফে টাইগার (৩৪), মতিউর রহমান ওরফে হৃদয় (৩৫), মাহমুদুল হাসান কবির (৩২), আবু মুসা ওরফে তালহা ওরফে রবিন (২৮), নজরুল ইসলাম ওরফে বাইক হাসান (২৬) ও মাহফুজুর রহমান সোহেল ওরফে বিজন ওরফে সুজন (২৬)।

এদের মধ্যে ঢাকার হলি আর্টিজনসহ আশুলিয়া, কল্যাণপুর, চট্টগ্রাম, রাজশাহী, নারায়ণগঞ্জ, টাঈাইল, বগুড়ার আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে সাতজন নিহত হয়েছেন।  

এরা হলেন নজরুল ইসলাম ওরফে বাইক হাসান, মাহফুজুর রহমান সোহেল ওরফে বিজন ওরফে সুজন, আবু মুসা ওরফে তালহা ওরফে রবিন, সরোয়ার জাহান ওরফে আসিফ ওরফে আজোয়াফ বিন আব্দুল্লাহ ওরফে মানিক, জাহিদুল ইসলাম ওরফে মেজর জাহিদ, নুরুল ইসলাম ওরফে মারজান ও মো.তামিম চৌধুরী ওরফে তালহা ওরফে আবু দুজানা আল বাঙ্গাল।

সংবাদ সম্মেলনে এসপি বলেন, গত বছর ৪ জুন নাটোরের রাজবাড়িতে বসে তারা সুনীল গোমেজকে হত্যার বৈঠক করেন এবং দায়িত্ব বন্টন করে দেন। নজরুল ইসলাম ওরফে বাইক হাসানকে সার্বিক তদারকির দায়িত্ব দেওয়া হয়।

গত বছরের ৫ জুন সকাল সাড়ে ১১টা থেকে ১২টার মধ্যে বড়াইগ্রাম উপজেলার বনপাড়ার খ্রিস্টান পল্লির সুনীল গোমেজকে হত্যা করা হয়। হত্যার পর বাইক হাসান ‘থ্রীমা অ্যাপসের’ মাধ্যমে এ খবর রাজীব গান্ধিকে জানান।পরে তিনি খবরটি মারজানকে জানান, বলেন এসপি।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আব্দুল হাই অভিযোগপত্র দাখিল শেষে সাংবাদিকদের বলেন, নিবিড় অনুসন্ধান, কারিগরি পর্যবেক্ষণ ও রাজীব গান্ধির দেওয়া জবানবন্দির উপর ভিত্তি করে অভিযোগপত্র দেওয়া হয়েছে।

এই মামলায় গ্রেপ্তার হওয়া অন্যদের মামলার দায় থেকে অব্যাহতির সুপারিশ করা হয়েছে অভিযোগপত্রে।


২০১৬ সালের ৫ জুন খ্রিস্টান পাড়ার নিজ মুদি দোকানে সুনীল গোমেজকে কুপিয়ে হত্যা করে অজ্ঞাত পরিচয় হামলাকারীরা। হত্যাকাণ্ডের পর জঙ্গি গোষ্ঠী আইএস দায় স্বীকার করে বার্তা দেয়। ওইদিন রাতেই নিহতের মেয়ে স্বপ্না গোমেজ বাদী হয়ে বড়াইগ্রাম থানায় মামলা দায়ের করেন।

প্রচ
 

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক : সুকৃতি কুমার মন্ডল 

 খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

+8801711-98 15 52

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71