রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮
রবিবার, ৮ই আশ্বিন ১৪২৫
 
 
সৈয়দপুরে বিরল রোগে আক্রান্ত আনমোল
প্রকাশ: ০১:২১ pm ৩০-১১-২০১৭ হালনাগাদ: ০১:৫৩ pm ৩০-১১-২০১৭
 
নীলফামারী প্রতিনিধি:
 
 
 
 


নীলফামারীর সৈয়দপুরের পুরাতন বাবুপাড়া এলাকার মুদি দোকানির মেয়ে আনমোল বিরল রোগে আক্রান্ত হয়েছে। জন্মের পর থেকেই ওই রোগে আক্রান্ত হয়ে শরীরের যন্ত্রনা সহ্য করে বেঁচে আছে। শহরের পুরাতন বাবুপাড়া এলাকায় ছোট্ট মুদি দোকানি মোঃ খলিদ ও ফারদিবা বানীর কোলে জন্ম নেয়া আনমোলের বয়স ১৩ বছর।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, জন্মের পর থেকে শরীরের চামড়া শুকিয়ে খসে পড়তে থাকে। গরীব অসহায় বাবা চিকিৎসার কোন ক্রটি করেনি। অনেক ডাক্তার দেখিয়েও কোন লাভ হয়নি। ঢাকার চর্ম বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের চিকিৎসা করানো হয়। ডাক্তার বলেছেন বাংলাদেশে এই রোগের চিকিৎসা নেই তবে বিদেশে চিকিৎসা করা হলে সে সুস্থ্য হতে পারে। বিদেশে চিকিৎসা করানোর সামর্থ্য নেই ছোটকুর। মহল্লায় ভাড়ায় ছোট মুদি দোকান করেই কোন রকম সংসার চলে। চোখের সামনে সন্তানের এমন যন্ত্রনা সহ্য করতে পারেন না এই অসহায় দম্পত্তি। আনমোল চলাফেরা করতে না পারলেও স্পষ্টভাবে কথা বলতে পারে। বাড়ীতে প্রাইভেট মাষ্টারের কাছে লেখাপড়া করছে। বর্তমানে সে ৩য় শ্রেনিতে পড়ছে। লেখাপড়ায়ও সে অনেক ভাল। মেধাবী হওয়া সত্ত্বেও শারীরিক অক্ষমতার কারণে আনমোলের ভবিষ্যৎ নিয়ে বাবা মা দুঃচিন্তায় রয়েছে। ২ বছর ধরে প্রতিবন্ধির ভাতা পেলেও প্রতিদিনের তার পুষ্টিকর খাদ্য ও চিকিৎসা জনিত খরচ মিটাতে হিমশিম খাচ্ছে তার বাবা।

আনমোল বাবা মোঃ খলিদ বলেন, মেয়ের এই বিরল রোগের চিকিৎসার ব্যায় আমার সামর্থের বাইরে কিন্তু আশা ছাড়েনি। সাধ্যমত আমার একমাত্র সন্তানের চিকিৎসা চালিয়ে যাব। আমার বিশ্বাস আনমোলের এই বিরল রোগ থেকে আল্লাহ মুক্তি দেবেন। তিনি মেয়ের জন্য সকলের কাছে দোয়া ও আর্থিক সহায়তা চান।

এমম/এসকে 

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71