বুধবার, ২২ মে ২০১৯
বুধবার, ৮ই জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬
 
 
সৈয়দপুরে শীত মোকাবেলায় চলছে তোষক তৈরি ব্যস্ত সময়
প্রকাশ: ০২:৪২ pm ২৯-১০-২০১৫ হালনাগাদ: ০২:৪২ pm ২৯-১০-২০১৫
 
 
 


সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি : উত্তরের নীলফামারী জেলার সৈয়দপুরে দিনের বেলাতে কিছুটা গরম থাকলেও রাতে শীত অনুভূত হচ্ছে।

দিনের শেষে সন্ধ্যায় শীত শুরু হয়ে ভোর পর্যন্ত অব্যাহত থাকছে। এখানকার মানুষ শীতের আগাম প্রস্ততি হিসাবে লেপ-তোষক কারিগরদের কাছ থেকে তৈরি করে নিচ্ছেন। অভাবী ও গরিব মানুষেরা পুরাতন লেপ -কাঁথা রিপিয়ারিং করে ব্যবহার উপযোগি করছেন।

শহরের শহীদ ডা. জিকরুল হক সড়ক, রংপুর রোডে ও বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা লেপ-তোষক তৈরির দোকানগুলোতে ভিড় পরিলক্ষিত হচ্ছে। গেল বছরের চেয়ে এবছর তুলার দাম ও মজুরী বৃদ্ধি পাওয়ায় লেপ- তোষকের দাম দ্বিগুণ পড়ছে। ফলে অনেকের পক্ষে তা বানানো সম্ভব হচ্ছে না।

এদিকে গরম কাপড় কেনার জন্য অভাবী মানুষেরা পুরাতন কাপড়ের দোকানগুলোতেও ভিড় করছেন। এবছর ৫০ টাকার নিচে কোন গরম কাপড় মিলছে না। দোকানীরা জানিয়েছেন, চাহিদা বেশি এবং পুরাতন কাপড়ের সরবরাহ কম থাকায় এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে।

বর্তমানে বাজারে সাদা তুলা ৮০ টাকা, চাঁদর তুলা ১শ’ টাকা, গার্মেন্টস তুলা ২০ টাকা, রঙিন তুলা ৪০ টাকা, শিমুল তুলা সাড়ে ৩শ’ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। পুরোদমে শীত শুরু হলে এই দাম আরও বাড়বে বলে জানান দোকানদাররা। ৫ ফিট বাই ৭ ফিট মাপের তোষক বানাতে খরচ পড়ছে ৭শ’ টাকা, লেপ ৪ হাত বাই ৫ হাত মাপের কভারসহ ১ হাজার ২শ’ টাকা খরচ পড়ে।

উপজেলার কামারপুকুর, কাশিরাম বেলপুকুর, খাতামধুপুর, বাঙ্গালিপুর ও বোতলাগাড়ি ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, গৃহবধূরা ঘরের পুরানো কাঁথা মেরামত করে শীত নিবারণের প্রস্ততি নিচ্ছেন। মৌসুমী ফেরিওয়ালারা ভ্যানে করে গ্রামে গ্রামে গার্মেন্টস তুলার তৈরি লেপ- তোষক বিক্রি করছেন। গ্রামের মানুষেরা দাম কমের কারণে এসব কিনছেন। আর ফেরিওয়ালারা চুটিয়ে ব্যবসা করছেন।

বোতলাগাড়ি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ছাইদুর সরকার জানান, জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে এবার হেমন্তেই রাতে শীত অনুভুত হচ্ছে। তিনি বলেন এই অঞ্চলে এখন দিনে কিছুটা গরম অনুভূত হলেও রাত বাড়ার সাথে সাথে শীতের তীব্রতাও বেড়ে চলেছে।

এইবেলা ডট কম/মোমেন/পিসি
 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক : সুকৃতি কুমার মন্ডল 

 খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

+8801711-98 15 52

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71