সোমবার, ২১ জানুয়ারি ২০১৯
সোমবার, ৮ই মাঘ ১৪২৫
 
 
স্বাস্থ্যের রুটিন চেকআপ কতটা জরুরি
প্রকাশ: ০৫:৫৩ pm ০৫-১২-২০১৭ হালনাগাদ: ০৫:৫৩ pm ০৫-১২-২০১৭
 
 
 


বছরেরে পর বছর কেটে গেলেও স্বাস্থ্যের রুটিন পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হয়ে ওঠে না অনেকেরই। বাড়ির কর্তা অনেক সময় অফিস থেকেই হোক, কি নিজ উদ্যোগে, নিজের স্বাস্থ্যের রুটিন চেকআপ করিয়ে নেন। কিন্তু বাড়ির নারী সদস্যটি অনেক সময় থাকেন অন্ধকারে। তার মানে কি নারীদের রুটিন চেকআপের প্রয়োজন নেই? তা নয়। পুরুষদের মতো নারীদেরও উচ্চ রক্তচাপ, ডায়াবেটিস, হৃদরোগ, স্ট্রোক ইত্যাদি রোগের ঝুঁকি আছে। বরং নারীরা এর বাইরে আরও কিছু রোগের ঝুঁকিতে থাকেন, যেখানে রুটিন পরীক্ষার ভূমিকা আছে। যেমন স্তন ক্যানসার, জরায়ু বা জরায়ুমুখের ক্যানসার। আবার কিছু রোগ আছে যা নারীদের বেশি হয়। যেমন-থাইরয়েডের সমস্যা বা নানা ধরনের বাত। তাই নারীদেরও রুটিন পরীক্ষার দরকার আছে। এখন জেনে নিন কী হতে পারে আপনার এই সব রুটিন পরীক্ষা।

* পূর্ণবয়স্ক নারীদের বছরে অন্তত একবার রক্তচাপ মাপা উচিত। ২০ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে রক্তে শর্করা বা চর্বি পরীক্ষা শুরু করা উচিত। যদি আপনি ওজনাধিক্য বা স্থূলতায় ভোগেন, পরিবারে ডায়াবেটিস বা হৃদরোগের ইতিহাস থাকে, তবে অল্প বয়সেই শুরু করতে হবে। আর গর্ভাবস্থায় রক্তচাপ মাপা এবং রক্তে শর্করা দেখাটা জরুরি।

* ২১ বছর বয়স থেকে জরায়ুমুখ ক্যানসার স্ক্রিনিং শুরু করা উচিত। এ জন্য চিকিৎসককে দিয়ে পরীক্ষা করা যায়, সঙ্গে প্যাপস স্মেয়ার টেস্ট। প্রতি ৩ বা ৫ বছর পরপর করলে ভালো।

* ব্রেস্ট সেলফ এক্সামিনেশন বা নিজে পরীক্ষা করা শিখে নিয়ে নিজে নিজে মাসে একবার নিজের স্তন পরীক্ষা করুন। এটা শুরু করা উচিত ২০ বছর বয়স থেকেই। যদি পরিবারে স্তন ক্যানসারের ইতিহাস থাকে বা স্তনে কোনো অস্বাভাবিকতা ধরা পড়ে, তবে আলট্রাসনোগ্রাফি বা ম্যামোগ্রাফি চিকিৎসকের পরামর্শে করতে পারেন। ৪০ বছরের আগে সাধারণত ম্যামোগ্রাফির কথা বলা হয় না।

* এ ছাড়া বছরে অন্তত একবার দাঁত ও চোখ পরীক্ষা করিয়ে নেওয়া ভালো।

* ৫০ বছরের পর কোলন ক্যানসার নির্ণয় করতে কলনোস্কোপি পরীক্ষার ওপর জোর দেওয়া হয়। তবে চিকিৎসকের সন্দেহ হলে এর আগেও করা যায়।

নিয়মিত বা রুটিন পরীক্ষা-নিরীক্ষা অনেক অনির্ণীত রোগকে আগে নির্ণয় করতে সাহায্য করে। যার কারণে সর্বদা এ বিষয়ের প্রতি সকলেরই খেয়াল রাখা জরুরি।

লেখক: ডা. মৌসুমী মরিয়ম সুলতানা : মেডিসিন বিশেষজ্ঞ, ইব্রাহিম জেনারেল হাসপাতাল, মিরপুর, ঢাকা


এসএম

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক : সুকৃতি কুমার মন্ডল 

 খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

+8801711-98 15 52

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71