বুধবার, ১৪ নভেম্বর ২০১৮
বুধবার, ৩০শে কার্তিক ১৪২৫
 
 
হাবিপ্রবিতে নিহত দুই ছাত্রের ময়না তদন্ত সম্পন্ন
প্রকাশ: ১১:১৫ am ১৭-০৪-২০১৫ হালনাগাদ: ১১:১৫ am ১৭-০৪-২০১৫
 
 
 


 দিনাজপুর হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (হাবিপ্রবি) ছাত্র সংঘর্ষে নিহত ২ ছাত্রের ময়না তদন্ত সম্পন্ন করে লাশ অভিভাবকের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে।
সংঘর্ষের ঘটনায় ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ক্যাম্পাসে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
দিনাজপুর হাবিপ্রবি’র রেজিষ্ট্রার মোঃ নজিবুর রহমান বলেন, বৃহস্পতিবার রাতে দিনাজপুর হাবিপ্রবিতে ছাত্র সংঘষের্ মাহমুদুল হাসান মিল্টন (২৬) ও মো. জাকারিয়া (২২) নিহত হন। নিহত মিল্টন নীলফামারী জেলার কিশোরগঞ্জ উপজেলার ভেড়ভেড়ি গ্রামের মাহবুর রহমানের পুত্র ও কৃষি অনার্সের সেমিস্টার ২ লেভেল ৪ এর ছাত্র এবং নিহত মোঃ জাকারিয়া দিনাজপুর শহরের বড়গুড়গোলার গোলাম মোস্তফার পুত্র ও বিবিএ’র লেভেল ২ সেমিস্টার ২ এর ছাত্র।
দিনাজপুর পুলিশ কন্ট্রোল রুম সূত্রে প্রকাশ, আজ শুক্রবার সকাল ১০টা ৪০ মিনিটে কোতয়ালী থানার এসআই আ স ম নুর, এসআই রাজিব ও এসআই পলাশ নিহত দুই ছাত্রের মরদেহের সুরতহাল রিপোর্ট প্রস্তুত করেন। দুপুর ২টায় দিমেক হাসপাতালের মর্গে লাশের ময়না তদন্ত সম্পন্ন করা হয়। দুপুর আড়াইটায় লাশ ২টি তাদের অভিভাবকের নিকট হস্তান্তর করা হয়।
মিল্টনের লাশ গ্রামের বাড়ী নীলফামারী জেলার কিশোরগঞ্জ উপজেলায় নিয়ে যাওয়া হয়। নিহত জাকারিয়ার নামাজে জানাজা বিকেল সাড়ে ৩টায় দিনাজপুর শহরের বড়গুড়গোলায় অনুষ্ঠিত হওয়ার পর দাফনের জন্য তার লাশ গ্রামের বাড়ী দিনাজপুরের খানসামা উপজেলার ভাবকীগ্রামে নেয়া হয়।
দিমেক হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডাঃ মোহাম্মদ আলী জানান, গুরুতর আহত হাবিপ্রবি’র ছাত্র জাহিদুর রহমান জাহিদ (২৩)কে আজ শুক্রবার সকাল ৯টায় বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং রানা (২৪) ও ডলার (২২)কে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য স্থানান্তরিত করা হয়। দিমেক হাসপাতালে গুরুতর আহত অবস্থায় ভর্তি ৫ ছাত্র নেতা হলেন রিয়ানুল হক (২২), শাওন (২২), বিজন (২৪), নয়ন (২২) ও সামিউল (২১)।
বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর প্রফেসর এটিএম শফিকুল ইসলাম জানান, সংঘর্ষের ঘটনার প্রেক্ষিতে কৃষি অনুষদের ডীন প্রফেসর ড. আনিস খানকে আহ্বায়ক ও ছাত্র পরামর্শ বিভাগের পরিচালক প্রফেসর ড. শাহাদত হোসেন খানকে সদস্য সচিব করে ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। আগামী ২ কার্য দিবসের মধ্যে কমিটিকে লিখিত তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেয়া হয়।
তিনি জানান, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ১১টা থেকে রাত দেড় টা পর্যন্ত ভিসি প্রফেসর রুহুল আমিনের সভাপতিত্বে তার বাসভবনে অনুষ্ঠিত জরুরী বৈঠকে সংঘর্ষের ঘটনায় মামলা দায়েরের সিদ্ধান্ত হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল পরীক্ষা ও ক্লাস যথারীতি চলবে বলেও সিদ্ধান্ত হয়।
তিনি বলেন, রেজিষ্ট্রার মোঃ নজিবুর রহমান বাদী হয়ে কোতয়ালী থানায় মামলা দায়ের করবেন। আইন উপদেষ্টা এ্যাডঃ মাহবুবুর রশিদের সাথে পরামর্শ করে এজাহার লেখা হচ্ছে বলে তিনি জানান।
পুলিশ সুপার মোঃ রুহুল আমিন জানান, এই ঘটনায় জড়িতদেরকে গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে হাবিপ্রবি ক্যাম্পাসে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71