সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮
সোমবার, ৫ই অগ্রহায়ণ ১৪২৫
 
 
হেলমেটবিহীন বাইক চালালেই পিছনে ছুটবেন ‘যমরাজ’
প্রকাশ: ০৮:৪৯ pm ১১-০৭-২০১৮ হালনাগাদ: ০৮:৪৯ pm ১১-০৭-২০১৮
 
এইবেলা ডেস্ক
 
 
 
 


এবার থেকে লাগামহীন বাইক আরোহীদের পেছনে তাড়া করবেন খোদ মৃত্যু দূত যমরাজ৷ বহু চেষ্টাতেও রাস্তায় হেলমেটহীন বেপরোয়া বাইক আরোহীদের সামলাতে এবার মর্ত্য লোকে জীবন্ত যমকে কাজে লাগাতে চাইছে ট্রাফিক পুলিশ৷ ঘটনাটি বেঙ্গালুরুর৷

মৃত্যুর দেবতাকে চাক্ষুষ করে এবার চেতনা ফিরবে ভেবেই এই অভিনব উদ্যোগ নিয়েছে বেঙ্গালুরু ট্রাফিক পুলিশ৷ বেঙ্গালুরু টাউন হলের বাইরে দেখা মিলল ঐতিহ্যবাহী সেই সোনালি আর কালোয় মেশানো পোশাক পরে মাথায় মুকুট নিয়ে গদা হাতে যমরাজকে৷ হেলমেটহীন বাইক আরোহীর পেছনে চিৎকার করতে করতে দৌড়চ্ছেন তিনি৷ পিছন ফিরে দেখে বাইক আরোহীরা কিছুটা থতমত খাচ্ছেন৷ যমরাজ চিল চিৎকারে সাবধান করে দিচ্ছেন আরোহীকে৷ শুধু বাইক আরোহীই নয়৷ কেউ যদি ট্রাফিক নিয়মের তোয়াক্কা না করে এগিয়ে আসছে তার কপালেই জুটছে হুঙ্কার৷ হালাসুরু গেটের ট্রাফিক পুলিশ এবার এভাবেই যমরাজের সাহায্য নিয়ে চেতনা ফেরাতে চাইছে আইন না মানা বেপরোয়া গাড়ি চালক ও আরোহীদের৷

ট্রাফিক পুলিশের ডেপুটি কমিশনার অনুপম অগরওয়াল এক সংবাদ মাধ্যমকে জানান জুলাইকে আমরা রোড সেফটি মাস হিসেবে ধরি৷ এই মাসে আমরা স্কুলে স্কুলে গিয়ে রাস্তায় চলাচলের বিষয়ে সচেতনতা বাড়ানোর জন্য বক্তৃতা দেওয়া বিভিন্ন রাস্তায় বেশকিছু অনুষ্ঠানের মাধ্যমে মানুষকে সচেতন করার চেষ্টা করছি৷ এছাড়া আমরা ভেবেছি যমরাজের চরিত্রটিকে ব্যবহার করে বেপরোয়া গাড়ি চালক ও বাইক চালকদের কাছে বার্তা পৌঁছে দেওয়া৷ যারাই ট্রাফিক নিয়ম লঙ্ঘন করবে তার বাড়িতেই পৌঁছে যাবেন স্বয়ং যমরাজ৷

মোটর বাইক ও বেপরোয়া গাড়ি থামিয়ে বা ট্রাফিক আইন না মানা গাড়িকে থামিয়ে বেজায় ধমকাচ্ছেন যে ব্যক্তি, তিনিই মর্ত্যে আসা যমালয় পতি৷ এই যমরাজের চরিত্রে যিনি অভিনয় করছেন তাঁর নাম বীরেশ৷ তিনি একটি হিন্দু পুরাণ-ভিত্তিক থিয়েটার গ্রুপে কাজ করেন৷ সেই যমালয় নরেশই যেই কোনও যুবককে ট্রাফিক আইন অমান্য করে এগিয়ে যেতে দেখছেন তাকেই গলা উঁচিয়ে সাবধান করে দিচ্ছেন এভাবে চললে কিন্তু তিনি তাকে ক্ষমা করবেন না৷ ছেড়ে কথা বলবেন না৷

কখনও আবার তিনি প্রচণ্ড গতিতে এগিয়ে যাওয়া মোটরসাইকেল আরোহীকেও ছেড়ে কথা বলছেন না৷ এই অভিনব প্রক্রিয়ার মাধ্যমে পথচারী ও মোটরবাইক আরোহীদেরই মূলত সচেতন করার চেষ্টা করা হচ্ছে৷ পুলিশ সূত্র অনুযায়ী সাধারণ মানুষের সচেতনতাই দুর্ঘটনা কমাতে পারবে৷ ট্রাফিক পুলিশ মারফৎ যা তথ্য মিলেছে তাতে দেখা গিয়েছে এবছর জুনের শেষ পর্যন্ত যা হিসাব মিলেছে তাতে ২৩৩৬ টি দুর্ঘটনা ঘটে গিয়েছে৷ তার মধ্যে ৩৩০ টি মারাত্মক দুর্ঘটনা৷ তথ্য অনুযায়ী গতবছরের ডিসেম্বরের শেষ পর্যন্ত ৫০৬৪ টি দুর্ঘটনা ঘটে যার মধ্যে ৬০৯ টি দুর্ঘটনা অত্যন্ত মারাত্মক৷ ২০১৬ তে ৭৫০৬ টি দুর্ঘটনা ঘটে যার মধ্যে ৭৫৪ টি ছিল ভয়ানক৷


বিডি

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71