সোমবার, ১৯ নভেম্বর ২০১৮
সোমবার, ৫ই অগ্রহায়ণ ১৪২৫
 
 
২৩ জন সন্তানকে একাই সামলাচ্ছেন মা মঞ্জু বালা 
প্রকাশ: ০৫:০৩ pm ১৩-০৫-২০১৮ হালনাগাদ: ০৫:০৩ pm ১৩-০৫-২০১৮
 
এইবেলা ডেস্ক
 
 
 
 


কথাতেই আছে মা হওয়া কি মুখের কথা? ‌না মা হওয়া সত্যিই বড় কঠিন। তার ওপর ২৩ জন সন্তানের জননী যদি কেউ হন, ভাবুন তো তাঁর অবস্থার কথা। এখন তো একটা সন্তানকেই মানুষ করতে গিয়ে মা–বাবারা হিমসিম খায়। আর এই মা একাই ২৩ জনকে বড় করে তুলেছেন। তবে সেই ২৩ জন সন্তান যদিও তাঁর নিজের নয়। তাতে কী, তিনি তো মা। ৫২ বছরের মঞ্জু বালা পাণ্ডা ২৩ জন সন্তানকে সমালাচ্ছেন অত্যন্ত দক্ষতার সঙ্গে। 

৩০ বছর বয়সে মঞ্জু বালা এসওএস চিলড্রেন’‌স ভিলেজে একজন পালক মাতা হিসাবে নাম লেখান। সেই সময় তাঁকে একসঙ্গে ৮–১০ জন শিশুর দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল। তিনি তাঁর অভিজ্ঞতা বলতে গিয়ে বলেন, ‘‌প্রথম প্রথম খুব চিন্তা হত, কীভাবে একসঙ্গে ১০ জন শিশুর যত্ন নেব? ‌তাদের স্কুলের জন্য তৈরি করা, প্রত্যেকদিন সকালে ১০ জনের টিফিন করা এবং তাদের দুপুরের খাবার তৈরি করা, কীভাবে সব করব এটাই ভেবে ঘাবড়ে গিয়েছিলাম।’‌ কিন্তু এখন মঞ্জু বালা মেনে নিয়েছেন যে ২২ বছর আগে যে মায়ের দায়িত্ব তাঁর কাছে চ্যালেঞ্জ ছিল এখন সেটাই তাঁর কাছে কোনও পুরস্কারের চেয়ে কম নয়। 

তিনি বলেন, ‘‌এখন আমার সন্তানরাই আমার জীবন। আমার কাছে আমার সন্তানরা যেমন তাদের আনন্দ ভাগ করে নেয় তেমনই তারা দুঃখ পেলেও সেটা আমায় মন খুলে জানায়।’‌ ভারতের ফরিদাবাদের এসওএস ভিলেজে চারটি রঙিন ঘর নিয়ে মঞ্জু বালা তাঁর ২৩ জন সন্তানকে নিয়ে থাকেন। কলেজে পড়াশোনা করা তাঁর এক ছেলে তাঁকে মাতৃ দিবসের দিন কার্ড দিয়েছে। এই দিনটা মঞ্জু বালার সঙ্গে কাটাতে পারেননি তাঁর ছেলে। কার্ডে লেখা আছে, ‘‌হ্যাপি মাদার্স ডে মম। আই লাভ ইউ’‌। 
 
একজন পালক মায়ের দায়িত্ব অনেক, বলে জানান মঞ্জু বালা। শিশুরা বিভিন্ন শহর এবং নানান পরিস্থিতির শিকার হয়ে এসওএস ভিলেজে আসে। এক–একজনকে সময় দেওয়া, শিশুদের তাদের মতো করে বোঝা খুবই কঠিন হয়ে দাঁড়ায় পালক মায়ের ক্ষেত্রে। একজনকে সময় বেশি দিলে অন্যজন রাগ করে বসে। কিন্তু মঞ্জু বালার সন্তানরা খুবই বোঝদার। তিনি বলেন, ‘‌আমার সন্তানরা আমায় বোঝে। তারা আমায় বলত ঠিক আছে মা, ওকে বেশি সময় দাও।’ ২৩ জন সন্তানের জননী জীবনে একা থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

মঞ্জু বালাজানান, সন্তান সুখের চেয়ে আর কোনও বড় খুশি নেই। তাঁর সন্তানরা বড় হচ্ছে, পড়াশোনা করছে এবং একদিন জীবনে সফল হবে তারা এর চেয়ে বেশি একজন মা কি বা আশা করতে পারে। মঞ্জু বালা বলেন, ‘‌আমি জানি আমার ২৩ জন সন্তানই একদিন বড় হয়ে নিজের পায়ে দাঁড়াবে। আমায় তাঁরা কখনোই একা থাকতে দেবে না, সেভাবেই আমি তাদের শিক্ষা দিয়ে বড় করে তুলেছি।’

নি এম/

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71