বুধবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮
বুধবার, ৪ঠা আশ্বিন ১৪২৫
 
 
‘অন্যদেশে হলে সরস্বতী পূজাকে ঘিরেই বড় টুরিস্ট উৎসব হতো’
প্রকাশ: ১১:০৬ pm ০৪-০২-২০১৭ হালনাগাদ: ১১:০৬ pm ০৪-০২-২০১৭
 
 
 


আরিফ জেবতিক ||

সরস্বতী পূজা চলছে। হিন্দু সম্প্রদায়ের বিদ্যার দেবী সরস্বতী পূজিত হন বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে। এ নিয়ে নিজের ছেলেবেলার স্মৃতি, অপ্রাপ্তি আর শঙ্কার কথা ফেসবুকে লিখেছেন লেখক আরিফ জেবতিক।

আরিফ জেবতিক লিখেছেন-

সরস্বতী পূজায় সিলেট শহরে সাধারনত ১১০টি মন্ডপ হতো তখন। সারা শহর জুড়ে অলিতে গলিতে মণ্ডপ, স্কুল-কলেজে মণ্ডপ। একটা থেকে আরেকটা সুন্দর। কোনোটায় কর্কশিটের ধবধবে কাজ তো কোনোটায় স্প্রে করে পুরো একটা নীলপদ্ম, কোথাও ঝলমলে আলোকবাতি আর কোনো মণ্ডপে দেবির সামনে একটা ঘুর্ণয়মান চাকায় একটা পদ্মফুল অথবা পানির ফোয়ারা।

তারপর শেষ দিনে বের হতো শোভাযাত্রা। একেবারের প্রথমে সিলেট পাইলট স্কুল, আর সবশেষে এমসি কলেজ-কুলীনত্বের কারনে তাদের এই অবস্থান সম্ভবত পাকা ছিল, প্রতিবারই। মাঝখানে শতাধিক ট্রাক। সেই ট্রাকে করে রঙিন আলোর ফোয়ারা, পুরো মণ্ডপই সেই ট্রাকে তুলে আনা হতো।

ঢাক-ঢোল-কাড়া-নাকাড়ার শব্দে শহর সরগরম। ট্রাক থেকে দুইপাশে মুড়কি আর চকলেট বিলি হাজারে হাজার।

-বহুদিন পরে জেনেছিলাম যে সরস্বতী পুজার এই শোভাযাত্রা সবখানে হয় না, দেশে মাত্র কয়েক জায়গায় হয়-সিলেটেরটার সবচাইতে সুন্দর।

অন্য কোনো দেশে হলে হয়তো এই ফেস্টিভ্যালকে ঘিরেই একটা বড় টুরিস্ট উৎসব হয়ে যেত, আমাদের হয়নি।

তারচাইতে বড় কথা, এখনও সিলেটে সেই জমজমাট শোভাযাত্রা হয় নাকি নিরাপত্তার দোহাই দিয়ে ওটা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে- ভয়ে ভয়ে কাউকে জিজ্ঞেসই করতে পারি না।

 

 

এইবেলাডটকম/প্রচ

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71