মঙ্গলবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮
মঙ্গলবার, ১০ই আশ্বিন ১৪২৫
 
 
আগামীকাল ছিটমহল বিনিময়ের দুই বছর পূর্তি
প্রকাশ: ০৮:০০ pm ৩১-০৭-২০১৭ হালনাগাদ: ০৮:০০ pm ৩১-০৭-২০১৭
 
 
 


বাংলাদেশ-ভারত ছিট বিনিময়ের দুই বছর পূর্তি আগামীকাল। ২০১৫ সালের ১ আগস্ট শূন্য প্রহরে বিলুপ্ত হয় দু’দেশের ভেতরে থাকা ১৬২টি ছিটমহল। এর মাধ্যমে ছিটমহলবাসীর ৬৮ বছরের বন্দি জীবনের অবসান হয়।

২০১৫ সালের ১ আগস্ট রাত ১২টা ১ মিনিটে বাংলাদেশের ভেতরের ১১১টি ছিটমহলের মধ্যে সবচেয়ে বড় ছিটমহল কুড়িগ্রামের দাশিয়ার ছড়ায় ৬৮টি মোমবাতি জ্বালিয়ে এই মাহেন্দ্রক্ষণকে স্মরনীয় করে রাখে ছিটমহলবাসী।

একযোগে একই কর্মসূচি পালিত হয় কুড়িগ্রামের ১২টি, লালমনিরহাটের ৫৯টি,পঞ্চগড়ের ৩৬টি এবং নীলফামারী জেলার ৪টি ছিটমহলে।

ছিট বিনিময়ের এ দিনটিকে স্মরনীয় করে রাখতে রাতভর চলে আলোর মিছিল ও আনন্দ উল্লাস। তাদের এই বাধ ভাঙা উল্লাসের সঙ্গে একত্রিত হয়ে সংহতি প্রকাশ করে দেশের বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ।

বাংলাদেশের মূল ভূখণ্ডের সঙ্গে যুক্ত হওয়ায় ১১১টি ছিটের ৪১ হাজার ৪৪৯ জন মানুষ বাংলাদেশি নাগরিক হিসেবে গণ্য হয়। এরপর থেকে ছিটবাসীর জীবনমান উন্নয়নে রাস্তা, বিদ্যুৎ, স্বাস্থ্য, শিক্ষাসহ সরকারের নেওয়া নানা কর্মসূচির বাস্তবায়ন শুরু হয়।

ছিট বিনিময়ের দুই বছর পূর্তিতে বিলুপ্ত ছিটমহল দাশিয়ার ছড়ার কালিরহাট বাজারে আজ রাত ১২টা ১ মিনিটে মোমবাতি প্রজ্জ্বলন ও ১ আগস্ট দিনব্যাপী খেলা-ধুলা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানসহ নানা কর্মসূচি হাতে নিয়েছে বিলুপ্ত ছিটমহলবাসী।

১৯৭৪ সালে ইন্দিরা-মুজিব চুক্তিটি বাংলাদেশের জাতীয় সংসদ অনুমোদন করলেও দীর্ঘ ৪২ বছর ধরে ঝুলিয়ে রাখে ভারত। ২০১১ সালে ঢাকায় হাসিনা-মনমোহন প্রটোকল স্বাক্ষরিত হয়।

নরেন্দ্র মোদি সরকার ক্ষমতায় আসার পর দু’দেশের সম্পর্ক উন্নয়নে ছিট মহল বিনিময়ের বিষয়টি প্রাধান্য পায়। পরে ২০১৫ সালের ৫ মে ভারতীয় মন্ত্রিপরিষদে স্থল সীমান্ত বিলটির অনুমোদন দেওয়া হয়।

৬ মে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যসভায় বিলটি সর্বসম্মতিক্রমে পাস হয়। ভারতের লোকসভায় বিলটির চূড়ান্ত অনুমোদন পেলে ছিটমহল বিনিময়ের বিষয়টি আলোর মুখ দেখে।

ভারতের অভ্যন্তরে থাকা ৫১টি ছিটমহলের অবস্থান পশ্চিমবঙ্গের কোচবিহার জেলায় ৪৭টি এবং জলপাইগুড়ি জেলায় ৪টি। লোকসংখ্যা ১৪ হাজার ২১১ জন।

ছিটমহল বিনিময়ের ফলে বাংলাদেশ পায় ১৭ হাজার ২৫৮ একর এবং ভারত পায় ৭ হাজার ১১০ একর জমি।

 

পিসিএস

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71