সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮
সোমবার, ৯ই আশ্বিন ১৪২৫
 
 
ইসলামপুরে মানবেতর জীবন কাটাচ্ছে ৮ শতাধিক প্রতিবন্ধী পরিবার
প্রকাশ: ০৪:৪৫ pm ১৯-০৭-২০১৭ হালনাগাদ: ০৪:৪৫ pm ১৯-০৭-২০১৭
 
ওসমান, জামালপুর প্রতিনিধি :
 
 
 
 


জামালপুরের ইসলামপুরে বন্যা কবলিত ৮ শতাধিক প্রতিবন্ধী পরিবার মানবেতর জীবন যাপন করছেন। প্রায় ১২ দিন পার হলেও পাননি এক ছটাক ত্রাণসামগ্রী। 

পাথর্শী ইউনিয়নের জারলতলা গ্রামের প্রতিবন্ধী আঃ করিম ক্যাচের উপর ভর করে বন্যার পানি উপেক্ষা যাচ্ছিলেন খাবার সংগ্রহের উদ্যেশে। তিনি আক্ষেপ করে বলেন, “ও সাংবাদিক ভায়েরা বন্যার পানিতে মাচার উপর ১২দিন সময় কেটে গেলেও ত্রাণ পাই নি। বন্যার পানিতে মরে গেলাম না বেচে থাকলাম খবরও কেও নেয় নি।”

অন্যদিকে দেলীরপাড় গ্রামের প্রতিবন্ধী হবিবুর রহমান হবি ট্রাইসাইকেলে বসে জানান, ত্রাণের জন্য অপেক্ষা করছি। কেও ত্রান দিবেন কি না? এমন প্রশ্ন করেন সাংবাদিকদের কাছে। ঘরের মেঝে থেকে মাটি সরে ঘরবাড়ী ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। চৌকির উপর চৌকি দিয়ে রাত্রি যাপন করছি। ঘরবাড়ী ভেঙে গেছে। একটু বৃষ্টিতেই সপরিবারে কাকভেজা হতে হয়। রাতে বিষধর সাপও উঠে আসে। টিউবওয়েল বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে। জীবন বাঁচানোর জন্য দূষিত বন্যার পানি পান করছি।”

জামালপুর জেলার “ডিজাএ্যাবল্ড পিপলস অর্গানাইজেশন টু ডেভেলপমেন্ট” (ডিপিওডি) মোবারক হোসেনের সাথে প্রতিবন্ধীদের সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি বলেন- ইসলামপুরে বন্যায় ক্ষতিগ্রস্থ প্রতিবন্ধী ৮ শত পরিবারের প্রায় ৫ শত ঘর বাড়ীতে বন্যার পানি উঠেছিল। ঘরের মেঝেতে পানি উঠার কারনে অনেক প্রতিবন্ধীদের গবাদী পশু হাসঁ মুরগী নিয়ে উচুঁ রাস্তায় এবং কালভার্টের উপর আশ্রয় নিতে দেখা গেছে। নিজের পরিবারের খাবার জুগাতেই প্রতিবন্ধীদের সাহায নিতে হয় অন্যজনের। বন্যার জরুরী পরিস্থিতি মোকাবেলার জন্য দূর্গত প্রতিবন্ধী পরিবারগুলোর মাঝে শুকনো খাবার, পানি বিশুদ্ধকরণ ট্যাবলেট, ওরস্যালাইন ও গবাদী পশুর শুকনো খাবার বিতরণ করা অত্যন্ত জরুরী বলে মনে করছেন অভিজ্ঞ মহল।

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71