শনিবার, ১৭ নভেম্বর ২০১৮
শনিবার, ৩রা অগ্রহায়ণ ১৪২৫
 
 
জামালপুরে ভয়াবহ বন্যায় ৮ লক্ষাধিক মানুষ পানিবন্ধী
প্রকাশ: ০৫:১৩ pm ১৯-০৮-২০১৭ হালনাগাদ: ০৫:১৩ pm ১৯-০৮-২০১৭
 
জামালপুর প্রতিনিধি :
 
 
 
 


জামালপুরে ভয়াবহ বন্যায় জেলার ৭ উপজেলার ৫৮টি ইউনিয়ন প্লাবিত হয়ে ৮লক্ষাধিক মানুষ পানি বন্ধী হয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে। চলছে ত্রাণের জন্য হাহাকার। বন্যায় তলিয়ে গেছে রাস্তা-ঘাট, ঘরবাড়ি, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ফসলি জমির মাঠ, পুকুর ও গ্রামের পর গ্রাম। 

যমুনা নদীতে বন্যার পানি কিছুটা হ্রাস পেলের ব্রহ্মপুত্র, দশানি ও ঝিনাই নদীতে বন্যার পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। মেলান্দহ, মাদারগঞ্জ ও সরিষাবাড়ী উপজেলা সমুহের নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হয়ে জেলার সার্বিক বন্যা পরিস্থিতির আরও অবনতি হয়েছে। শনিবার সকালে জেলার বাহাদুরাবাদ ঘাট পয়েন্টে যমুনা নদীতে বন্যার পানি বিপদ সীমার ৭৫সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে। ফলে ইসলামপুর ও দেওয়ানগঞ্জের বন্যা পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হয়েছে। 

অপরদিকে ব্রহ্মপুত্র নদের জামালপুর পয়েন্টে ২৪ ঘন্টায় ১৬ সেন্টি মিটার বৃদ্ধি পেয়েছে। এছাড়াও জামালপুরের দশানি ও ঝিনাই নদীতেও বন্যার পানি পানি বৃদ্ধি অব্যাহত রয়েছে। জামালপুর সদর উপজেলাসহ জেলার মেলান্দহ, মাদারগঞ্জ ও সরিষাবাড়ী উপজেলা সমুহের নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত হয়ে জেলার সার্বিক বন্যা পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে।

ভযাবহ বন্যায় জামালপুর জেলার ৬৮টি ইউনিয়নের মধ্যে ৫৮টি ইউনিয়ন ও ৮টি পৌরসভা সমুহের ৫৮৩টি গ্রাম বন্যার পানিতে ভাসছে। জেলার ৭ উপজেলায় ৮লাখ ৮৭ হাজার ৭৪২ জন মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে এবং ৪৮ হাজার ১৮৭ হেক্টর কৃষি জমির ফসল ক্ষতিগ্রস্থ ও পানিতে নিমজ্জিত রয়েছে। 

ভয়াবহ বন্যার কারণে সারা জেলার ১হাজার ১০১টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পাঠদান কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে। বন্যার কারণে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত  শিশু ও গর্ভবতী নারীসহ ১২জনের মৃত্যু হয়েছে। সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হয়েছে যমুনার তীরবর্তী এলাকা ইসলামপুর ও দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা। এ দুই উপজেলায় সবকয়টি ইউনিয়ন প্লাবিত হয়েছে। বন্যা আক্রান্ত মানুষ চরম দূর্ভোগে রয়েছে। 

জামালপুর জেলা প্রশাসন সুত্রে আরও জানাগেছে, শুক্রবার সন্ধা পর্যন্ত জেলার বন্যার্তদের জন্য ১হাজার ৪৩৮ মেট্রিক টন চাল ও ৪৪ লাখ ৭৫ হাজার টাকা বরাদ্দ দেওয়া হযেছে। তন্মধ্যে ৭৬৮ মেট্রিক টন চাল ও ২১ লাখ ২৫ হাজার টাকা বিতরণ করা হয়েছে। বাকি চাল ও নগদ টাকা বিতরণের প্রক্রিয়ায় রযেছে। এছাড়াও বন্যার্তদের চিকিৎসা সেবার জন্য সারা জেলায় ৭৭টি মেডিকেল টিম কাজ করছে।

ও/এসএম

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71