শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮
শনিবার, ৭ই আশ্বিন ১৪২৫
 
 
স্ত্রীকে এসিডে ঝলসে দেয়ায় স্বামীসহ আটক ৩
প্রকাশ: ০৩:৫৯ pm ০৬-০৯-২০১৭ হালনাগাদ: ০৩:৫৯ pm ০৬-০৯-২০১৭
 
ময়মনসিংহ প্রতিনিধি :
 
 
 
 


ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট উপজেলার কালাপাগলা এলাকায় স্বামীর ছোঁড়া এসিডে স্ত্রীসহ একই পরিবারের ৩ জন দগ্ধের ঘটনায় স্বামীসহ ৩ জনকে আটক করেছে পুলিশ। 

বুধবার মধ্যরাতে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। আটককৃতরা হলেন, উপজেলার পৌর শহরের রঘুনাথপুর এলাকার আঃ হাই মেম্বারের পুত্র সোহেল মিয়ার (৩০), কালাপাগলা গ্রামের জয়নাল আবেদীনের পত্র আল আমিন (২৫) ও এসিড বিক্রেতা উজ্জল মিয়া। 

উল্লেখ্য, দুই বছর আগে মরিয়মের সঙ্গে প্রেম করে পারিবারের অজান্তে বিয়ে হয় সোহেল মিয়ার। বিয়ের এক বছর পরে তাদের সংসারে সৃষ্টি হয় ঝগড়া। প্রায়ই মরিয়মকে বেধরক নির্যাতন করতেন তার স্বামী। ৮ মাস আগে স্বামী ও স্ত্রীর মধ্যে বিবাহ বিচ্ছেদ (ডির্ভোস) ঘটে। এরই জের ধরে মঙ্গলবার (৫ সেপ্টেম্বর ) রাত ১০ টার দিকে মরিয়ম তার ছোট বোন ও ভাইকে নিয়ে টিভি দেখার সময় সোহেল ঘরের জানালা দিয়ে স্ত্রী মরিয়মকে লক্ষ্য করে এসিড নিক্ষেপ করেন। এ সময় মরিয়মসহ তার দুই ভাই-বোনের শরীর জলছে যায়। তাদের ডাক চিৎকারে স্বজনরা এগিয়ে আসলে সোহেল পালিয়ে যায়।  ওই তিনজনকে গুরতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হালুয়াঘাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের দ্রুত ময়মমসিংহ মেডিকেল কলেজ (মমেক) হাসপাতালে প্রেরণ করেন। 

হালুয়াঘাট সার্কেলের সহকারী পুলিশ মোঃ আলমগীর হোসেন পিপিএম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, তালাকপ্রাপ্ত স্ত্রীর উপর স্বামীর ছোড়া এসিডে তিনজন ঝলছে গেছে। তাদের উদ্ধার করে মমেক হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। রাতেই পুলিশ গিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। সারারাত অভিযান চালিয়ে এসিড নিক্ষেপকারী স্বামী ও এসিড বিক্রেতাসহ তিনব্যাক্তিকে আটক করেছে পুলিশ। 

ভিকটিমের বাবা আবুল কালাম বাদি হয়ে একটি অভিযোগ দিয়েছেন। সেই অভিযোগেই মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানান সহকারী পুলিশ সুপার।

আর/এসএম

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71