মঙ্গলবার, ১৯ মার্চ ২০১৯
মঙ্গলবার, ৫ই চৈত্র ১৪২৫
 
 
খোলা আকাশের নিচে ভূ’মিহীন এক পরিবার
বসতবাড়ি উচ্ছেদের পর ৫মাসের শিশু সন্তানকে নিয়ে রাত কাটিয়েছে
প্রকাশ: ১২:১৩ pm ২৩-১১-২০১৬ হালনাগাদ: ১২:১৩ pm ২৩-১১-২০১৬
 
 
 


রাজশাহী প্রতিনিধি : এলাকার এক সম্পদশালী কর্তৃক বসতবাড়ি উচ্ছেদের পর ৫মাসের শিশু সন্তানকে নিয়ে খোলা আকাশের নিচে রাত কাটিয়েছে ভ’মিহীন এক পরিবার।

উদ্বাস্তু হয়ে পড়া এই পরিবারটি শীতে এবং কুয়াশার ভিতর অতিকষ্টে বাঘা-ইশ্বরদী সড়ক সংলগ্ন লালপুর-বাঘা উপজেলার সীমান্ত  এলাকার বেরিলাবাড়ি গ্রামের একটি বট গাছের তলায় রাত কাটিয়েছে।

উচ্ছেদ করার আগে পুনর্বাসনের বিকল্প কোন ব্যবস্থা না করায়,এখন কোথায় যাবে, এনিয়ে অনেকটা অসহায় অবস্থাতেই দিন কাটছে তাদের। মঙ্গলবার বিকালে ওই এলাকায় গিয়ে  এচিত্র দেখা গেছে।

পরিদর্শনকালে ওই পরিবারের সাথে কথা বলে জানা গেছে, ২৬ বছর আগে উপজেলার বড়ছয়ঘটি গ্রামের খাঁপাড়া থেকে বাড়ি ভেঙ্গে নিয়ে, বাঘা-ইশ্বরদী সড়ক সংলগ্ন লালপুর-বাঘা উপজেলার সীমান্ত এলাকার বেরিলাবাড়ি গ্রামে ঘরবাড়ি তুলে বসবাস করে আসছেন।

পরিবারটির সদস্য সালেহা জানান,পাশের গ্রাম বাদলি বাড়ি এলাকার মকবুল,আনছার সরকার, তৎকালিন চেয়ারম্যান মক্কেল আলী,জামাল মেম্বর(বর্থমানে মৃত) সহ বেশ কিছু লোকজন ভ’মিহীন হিসাবে তাদের সহযোগিতাও করেছেন।

গ্রামের মকবুল,আনছার ও সান্টু জানান, বাদলিবাড়ি গ্রামের সম্পদশালী সাধু প্রামানিক প্রায় ১৩ বছর আগে জৈনক কেবলার নিকট থেকে ৯ কাঠা জমি ক্রয় করেন।

খরিদসুত্রে মালিক কেবলা বেরিলাবাড়ির ইয়াদ আলীর শরিকানদের কাছ থেকে উক্ত জমিটি কেনার পর সাধুর কাছে বিক্রি করে দেন। সাধুর কেনা এই জমিটি রাস্তা সংলগ্ন উত্তরে ভ’মিহীন পরিবারের নির্মানাধীণ বাড়ির পেছনে রয়েছে।

তাদের দেওয়া তথ্য মতে, রাস্তার উত্তরে বিক্রিত এই সম্পত্তি ছাড়াও রাস্তার দক্ষিনেও কেবলার জমি রয়েছে। দক্ষিন সীমানার এ জমির উপর দিয়ে পীচঢালা পাঁকা রাস্তা করা হয়েছে।

নকশা মোতাবেক রাস্তার প্রকৃত জমি উত্তরে পড়ে ছিল।সেখানেই ভ’মিহীন পরিবারটি ঘর তুলে বসবাস করছিলেন।ইয়াদ আলীর শরিকানদের নিকট থেকে কেবলার  খরিদকৃত ৯কাঠা জমি সাধুর নিকট হস্তান্তর করার পর, সাধুর কেনা জমির দক্ষিনে ও রাস্তার উত্তরে ভ’মিহীনদের যে বাড়ি রয়েছে, সেই জমিটি দখল উচ্ছেদের  জন্য ১৩ বছর আগে নাটোর আদালতে মামলা করেন সাধু।সাধুর সাথে কথা 

বললে বিষয়টি নিয়ে তিনি মুখ খুলতে চাননি।তবে তিনি জানিয়েছেন আদালত কর্তৃক রায় পাওয়ার পর. সোমবার (২১-১১-১৬) আদালতের লোকজন এসে তার জমির দখল বুঝে দিয়েছেন।

লালপুর থানার অফিসার ইনচার্জ আবু ওবায়েদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এইবেলাডটকম/অরুনশীল/এফএআর

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

সম্পাদক : সুকৃতি কুমার মন্ডল 

 খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

+8801711-98 15 52

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2019 Eibela.Com
Developed by: coder71