শনিবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮
শনিবার, ৭ই আশ্বিন ১৪২৫
 
 
সুরভি মরেও বেঁচে রইলেন অন্যের মাঝে
প্রকাশ: ১০:২৬ am ২৭-১২-২০১৬ হালনাগাদ: ১০:২৬ am ২৭-১২-২০১৬
 
 
 


ডেস্ক নিউজঃ  সুরভি চাইত মানুষের সেবা করতে। কিন্তু শেষপর্যন্ত যে এইভাবে সে মানুষের সেবায় নিজেকে বিলিয়ে দেবে ভাবেননি তাঁরা।

সুরভির বাবা-মা চেয়েছিলেন মেয়েকে অমরত্ব দিতে। আর তাঁদের সেই ইচ্ছাপূরণে পরিতোষ নস্কর, বিজয়কুমার-রা তাঁদের ভগবানকে পেয়ে গেলেন চোখের সামনে। নবজন্ম পেতে চলেছেন তাঁরা।

এক প্রাণের বিনিময়ে তিন জনের নবজন্ম লাভ ও দু'জনের দৃষ্টশক্তি ফিরে পাওয়া। এ ঘটনা ঈশ্বর ছাড়া আর কে ঘটাতে পারে?

আসানসোলের সুরভি বরাটের বাবা-মা'ই পাঁচ জনের কাছে এখন ঈশ্বর নবজন্ম লাভ করা । কৃতজ্ঞতা জানানোর ভাষা নেই, ওঁরাই ঈশ্বর, বলছেন নবজন্ম পাওয়া রোগীর পরিবার ।পরিতোষ নস্করের পরিবার বলছে, আমাদের ভাষা নেই কৃতজ্ঞতা জানানোর।

আর বিজয়কুমার ভূতের পরিবার একেবারে সুরভির বাবা-মাকে বসিয়ে দিয়েছেন ঈশ্বরের আসনে। তাঁদের কথায়, কে বলে ঈশ্বর স্বর্গে থাকেন, আমাদের ঈশ্বর তো রয়েছেন চোখের সামনেই।

সুরভির বাবা সন্তান হরানোর যন্ত্রণা বুকে চেপে বলছেন, মেয়ে মানুষের সেবা করতে চাইত, তাই তাঁর সেই ইচ্ছার মর্যাদা দিতেই অঙ্গদানের ভাবনা।

আমার মেয়ে তো চলেই গেল, এখন তাঁর অঙ্গ গ্রহিতাদের প্রাণের স্পন্দনে থেকে যাবে আমার মেয়ে, এটাই আমাদের সান্ত্বনা।

 

এইবেলাডটকম/গোপাল

 
 
 
   
  Print  
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
Study in RUSSIA
 
আরও খবর

 
 
 
 
 

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : নিন্দ্রা ভৌমিক

খবর প্রেরণ করুন # info.eibela@gmail.com

ফোন : +8801517-29 00 02

a concern of Eibela Foundation

Request Mobile Site

 

 

Copyright © 2018 Eibela.Com
Developed by: coder71