eibela24.com
বৃহস্পতিবার, ১৫, নভেম্বর, ২০১৮
 

 
রাজাপুরে ডাক্তারদের বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ
আপডেট: ০৬:৫১ pm ১৯-০৯-২০১৭
 
 


ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাক্তারদের বিরুদ্ধে অনিয়ম ও কর্তব্যে অবহেলার অভিযোগ উঠেছে।

জানা যায়, ডাক্তাররা নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে ইচ্ছেমতো অফিস করছেন। যখন খুশি তখন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আসেন। আবার যখন খুশি তখন চলে যান। এক সপ্তাহ ধরে সরেজমিনে দেখা গেছে সকাল সাড়ে ৯ টার আগে কোনো ডাক্তারই অফিসে আসেন না। অথচ সরকারী নিয়ম রয়েছে সকাল ৮টা থেকে দুপুর আড়াইটা পর্যন্ত অফিস করা। আবার অভিযোগ রয়েছে, সাড়ে ১২ টা থেকে ১ টার পরে আর অফিসে থাকেন না তারা। 

রবিবার সকাল ৯ টা ৩৭ মিনিটে উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ মাহবুবুর রহমান তার বাসা থেকে বের হয়ে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রবেশ করেন। একই দিন সকাল ৯ টা ৪০ মিনিটে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ভিতরে গিয়ে দেখা যায়, আউটডোরে রোগীদের ভিড়। স্বাস্থ্যকর্মকর্তার কক্ষসহ বাকি সব ডাক্তারদের কক্ষগুলো খালি। এমন কি আউটডোর ফার্মেসীর দরজায়ও ছিল তালা। ওই সময় আউটডোর ফার্মেসীর সামনে দেখা গেছে কম করে হলেও ১০ জন ওষুধ কোম্পানীর বিপণন প্রতিনিধি ডাক্তারদের অপেক্ষায় রয়েছেন। উপজেলা ফ্যামিলি প্লানিং কর্মকর্তা আতিকুর রহমান বসেন ৭নং কক্ষে। ওই কক্ষটি কোনো দিনই খোলা পাওয়া যায়নি। 

ডাক্তারদের বিরুদ্ধে রয়েছে অফিস সময়ে বাহিরে রোগী দেখতে যাওয়ার অভিযোগ। অফিসে না এসে আউটডোর রোগী না দেখে সকাল ১০ টার আগ পর্যন্ত বাসায় প্রাইভেট  রোগী দেখা ও ওষুধ কোম্পানীর বিপণন প্রতিনিধির সাথে চুক্তিবদ্ধ হওয়ার সাক্ষাৎ যেন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ডাক্তারদের প্রধান কাজ। সোমবার বেলা ১২ টার দিকে ডাক্তার আসিফুজ্জামানকে তার কক্ষে চেয়ারে ঘুমন্ত অবস্থায় দেখতে পাওয়া গেছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মাহবুবুর রহমানের কাছে এ ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি অফিসের সময় ৮ টা থেকে আড়াইটা পর্যন্ত স্বীকার করলেও ডাক্তার বা অন্যান্য কর্মকর্তা কর্মচারীদের অনিয়মের ব্যাপারে কোন তথ্য দিতে পারেনি।  

 

এমএএ/আরপি