eibela24.com
শুক্রবার, ১৬, নভেম্বর, ২০১৮
 

 
ইসলামপুরে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান জাতীয়করণের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত
আপডেট: ০৯:০০ pm ২৪-০৯-২০১৭
 
 


জামালপুরের ইসলামপুর উপজেলার শতবর্ষী নারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান জে.জে.কে.এম গার্লস হাইস্কুল এন্ড কলেজকে জাতীয়করণের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষকবৃন্দ। শুক্রবার সকালে প্রতিষ্ঠানটির অধ্যক্ষের অফিস কক্ষে এই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। 

সংবাদ সম্মেলনে প্রতিষ্ঠান প্রধান অধ্যক্ষ আব্দুছ ছালাম চৌধুরী তার লিখিত বক্তব্যে বলেন, বাংলাদেশের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নারী শিক্ষা প্রসারের জন্য ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে ব্যাপক কর্মসূচী হাতে নিয়েছেন। “তিনি সম্প্রতি জাতিসংঘ ভাষনে বলেছেন নারীর শিক্ষা, প্রশিক্ষণ, প্রয়োজনীয় উপকরণ ও সমান সুযোগের ব্যবস্থা এবং এসডিজির সফল বাস্তবায়নে নারী ক্ষমতায়নের বিকল্প নেই।” তাই আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর এই বক্তব্যকে স্বাগত জানিয়ে আমাদের প্রতিষ্ঠানটি জাতীয়করণের দাবী জানাচ্ছি। 

তিনি আরও বলেন, ইসলামপুর জে, জে, কে, এম, গার্লস হাইস্কুল এন্ড কলেজ ১৯১৭ সালে প্রতিষ্ঠা লাভ করে। ২০১৭ সালে এই প্রতিষ্ঠান শতবর্ষে পদার্পণ করেছে। শতবর্ষের প্রাচীনতম এই নারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটির নিজস্ব জমির পরিমান ২.৮০ একর। পাকা ভবন সংখ্যা ৭টি। একটি ছাত্রী হোস্টেল নির্মাণ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। লাইব্রেরী, বিজ্ঞানাগার ও কম্পিউটার ল্যাব রয়েছে। এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটিতে প্রাথমিক স্কুল, মাধ্যমিক স্কুল, কলেজ, ভোকেশনাল এবং এইচ.এস.সি (বি এম) সহ চারটি শাখা বিদ্যমান। ২০১০ সালের প্রণীত জাতীয় শিক্ষা নীতির আলোকে একটি পূর্ণাঙ্গ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং উপজেলায় সর্বোচ্চ ফলাফল, পরপর তিন বছর জাতীয় স্কাউটস-এ প্রেসিডেন্ট অ্যাওয়ার্ড প্রাপ্ত, জাতীয় ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন। বর্তমানে এই প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীর সংখ্যা ২২১৮ জন। শিক্ষক-শিক্ষিকা ৬৫ জন। ২০১৬ সালে জে.এস.সি পরীক্ষায় ৬১ জন জি.পি.এ-৫ সহ ২৫১জন শিক্ষার্থী, এস.এস.সি পরীক্ষায় ২৪ জন জিপিএ-৫ সহ ১৮৯ জন শিক্ষার্থী পাশ করেছে। মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড ঢাকা এর বৃত্তি পেয়েছে ৯ জন। এছাড়াও অত্র উপজেলায় কোন সরকারী নারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান না থাকায় ইসলামপুর জে.জে.কে.এম গার্লস হাইস্কুল এন্ড কলেজটি জাতীয়করণে জন্য আপনাদের মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নিকট আবেদন জানাচ্ছি। যাতে করে এই প্রতিষ্ঠানটিকে জাতীয় করণের মধ্যদিয়ে এই অঞ্চলের গণমানুষের চাওয়ার বাস্তবায়ন ঘটে। তাই আজ আমরা ঐতিহ্যবাহী জে.জে.কে.এম গার্লস হাইস্কুল এন্ড কলেজের জাতীয়করণ চাই।
  
সংবাদ সম্মেলন শেষে প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষার্থী ও শিক্ষকমন্ডলীগন ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন করেন। মানববন্ধন শেষে ইসলামপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর একটি স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।


ওএইচ/আরপি