eibela24.com
রবিবার, ২১, জুলাই, ২০১৯
 

 
প্রধানমন্ত্রী হত্যাচেষ্টার দুই মামলার রায় ২৯ অক্টোবর
আপডেট: ০৬:৪৭ pm ১৬-১০-২০১৭
 
 


১৯৮৯ সালের ১০ আগস্ট ধানমণ্ডির ৩২ নম্বর বাড়িতে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যাচেষ্টা ও বিস্ফোরক আইনের দুই মামলার রায় ২৯ অক্টোবর ঘোষণা করবেন আদালত।

সোমবার ঢাকার চতুর্থ অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ মো. জাহিদুল কবির রায় ঘোষণার এ তারিখ নির্ধারণ করেন। ঘটনার ২৮ বছর পর মামলা দুটির রায় ঘোষণা করা হচ্ছে। পুরান ঢাকার নাজিমউদ্দিন রোডের অস্থায়ী এজলাসে এ মামলার বিচার চলছে।

১৯৮৯ সালের ১০ আগস্ট মধ্যরাতে ধানমণ্ডির ৩২ নম্বর রোডে বঙ্গবন্ধুর বাড়িতে বঙ্গবন্ধু কন্যা আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার ওপর এ হামলা চালায় ১০/১২ জনের একটি দল। এ সময় শেখ হাসিনা বাড়ির ভেতর অবস্থান করছিলেন।

এ ঘটনায় পুলিশ সদস্য মো. জহিরুল ইসলাম হত্যা প্রচেষ্টা ও বিস্ফোরক দ্রব্য আইনে ১৬ জনকে আসামি করে ধানমণ্ডি থানায় মামলা দায়ের করেন।

এজাহারে উল্লেখ করা হয়, ১৯৮৯ সালের ১০ আগস্ট রাত ১২টা থেকে দুইটার মধ্যে ১০/১২ জনের একটি দল ধানমণ্ডির ৩২ নম্বরের বাড়িতে হামলা করেন। তারা এ সময় গুলি চালিয়ে ও বোমা ফাটিয়ে ত্রাসের সৃষ্টি করেন। হামলাকারীরা ‘কর্নেল ফারুক-রশীদ জিন্দাবাদ’ শ্লোগান দিয়ে স্থান ত্যাগ করেন।

২০০৯ সালের ৫ জুলাই আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয়। আসামিদের মধ্যে গোলাম সারোয়ার, ফ্রিডম সোহেল, জর্জ, মো. শাজাহান বালু, নাজমুল মাকসুদ মুরাদ কারাগারে রয়েছেন। হুমায়ুন কবির (১), মিজানুর রহমান, খন্দকার আমিরুল ইসলাম কাজল ও গাজী ইমাম হোসেন জামিনে আছেন।

ঘটনার মূল পরিকল্পনাকারী আসামি সৈয়দ ফারুক রশীদ ও বজলুল হুদার বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলায় ফাঁসি কার্যকর হওয়ায় তাদের মামলার দায় হতে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

আসামি লেফটেনেন্ট কর্নেল আবদুর রশীদ, মো. হুমায়ুন কবীর (২), জাফর আহম্মদ, রেজাউল ইসলাম খান পলাতক রয়েছেন।

এর আগে গত ২০ আগস্ট গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় ছিয়াত্তর কেজি বোমা উদ্ধার ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যাচেষ্টার দুইটি মামলায় দশ আসামির মৃত্যুদণ্ড, এক আসামির যাবজ্জীবন, ৩ আসামির ১৪ বছর করে ও ৯ আসামির ২০ বছর করে কারাদণ্ডের রায় দিয়েছেন ট্রাইব্যুনাল।

আরডি/