eibela24.com
মঙ্গলবার, ২৫, সেপ্টেম্বর, ২০১৮
 

 
চুরির অভিযোগে গাইবান্ধায় শিশুকে গাছে বেঁধে নির্যাতন
আপডেট: ০৯:১১ pm ০৫-১১-২০১৭
 
 


গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলায় চুরির অভিযোগে এক শিশুকে গাছে বেঁধে নির্যাতনের অভিযোগে মামলা হয়েছে।

উপজেলার সর্বানন্দ ইউনিয়নের রামভদ্র কদমতলা গ্রামের এক মুরগির খামারের শনিবার রাতে এ ঘটনা ঘটে বলে সুন্দরগঞ্জ থানার ওসি আতিয়ার রহমান জানান।

এ ঘটনায় শিশুটির মা বাদী হয়ে খামার মালিক কবির হোসেন ও তার তিন সহযোগীকে আসামি করে মামলা করেছেন। আসামিদের গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান চলছে বলে জানান তিনি।

আহত শিশুটিকে সুন্দরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ইয়াকুব আলী মোড়ল বলেন, শিশুটির শরীরের বিভিন্ন জায়গায় মারাত্মক জখম ও গুরুতর আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এছাড়া নির্যাতনের ফলে শিশুটি মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে।

শিশুটির মা অভিযোগ করেন, স্বামীর মৃত্যুর পর সংসারে অভাব অনটনের কারণে ৫/৬ মাস আগে খামারে কাজ নেয় তার ছেলে। খামার থেকে ১০ হাজার টাকা চুরি হয়েছে দাবি করে শনিবার সকাল থেকে দিনভর তার ছেলেকে আটকে রেখে জিজ্ঞাসাবাদ করে খামারের মালিক কবির হোসেন।

“এরপর চুরির অপবাদে শনিবার সন্ধ্যায় খামারের পেছনে একটি গাছের বেঁধে তাকে মারধর করে। এক পর্যায়ে তার ডান হাতের আঙ্গুলে পিন ঢুকিয়ে দেন কবির ও তার লোকজন।”

মারধরের পর কবিরের উঠানে তাকে ফেলে রাখা হয়। পরে স্থানীয়দের সহায়তায় রাতে ছেলেকে উদ্ধার করে সুন্দরগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান বলে জানান তিনি।

এদিকে রবিাবর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে নির্যাতিত শিশুটির চিকিৎসার খোঁজ খবর নিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এসএম গোলাম কিবরিয়া।

ভিএস