eibela24.com
বুধবার, ১৪, নভেম্বর, ২০১৮
 

 
৬ হিন্দু পরিবারের জমি দখলের চেষ্টা আ’লীগ নেতার
আপডেট: ১১:২০ am ২১-১২-২০১৭
 
 


মোরেলগঞ্জে ৬ সংখ্যালঘু পরিবারের সদস্যরা বুধবার বেলা ১১টায় সংবাদ সম্মেলন করেছেন। খাউলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক দুলাল চন্দ্র সিকদার ওই পরিবারগুলোর পক্ষে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন। এ সময় সন্ন্যাসী গ্রামের লিটন সিকদার (৩৫), রাজারাম ভদ্র (৫০), সাবেক প্রধান শিক্ষক ফনিন্দ্রনাথ সিকদার (৭৮), মাদ্রাসা শিক্ষক বিমল চন্দ্র সিকদার (৫২) ও ব্যবসায়ী সমীর সিকদার উপস্থিত ছিলেন।


লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, মাস্টার আলী আকবরের ছেলে ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জিয়াউল হাসান ৬ সংখ্যালঘু পরিবারের জমি, বসতবাড়ি ও কয়েকটি দোকান ঘর জোরপূর্বক ভোগ দখলের চেষ্টা করছে।

ইতোপূর্বে একটি মন্দির ভেঙ্গে ফেলে জমি দখল করে নিয়েছে। বর্তমানে সন্ন্যাসী বাজারে দুটি দোকান ঘর দখলের চেষ্টা করছে। এতে বাধা দিলে দুলাল সিকদার, তার ছেলে লিটন ও রাজারাম ভদ্রকে মারপিট করে জিয়াউল ও তার লোকজন। এই ঘটনা সম্পর্কে ইউপি চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ সভাপতি মাস্টার আবুল খায়ের বলেন, ‘হিন্দুদের দোকান দখল নিয়ে জিয়াউল কয়েকজনকে মারপিট করেছে। ওই সময় প্রতিবাদ করলে আমাকেও লাঞ্ছিত করে জিয়াউল ও তার লোকজন’। 

এদিকে এই ঘটনা সম্পর্কে যুবলীগ নেতা জিয়াউল হাসান বলেন, ‘আমি মৃত শৈলেন্দ্রনাথ কাপালির জমিজমা দেখাশুন করি এবং সবকিছুর ডিফেন্স দেই। স্থানীয় আ’লীগের একটি অংশ এতে ঈর্ষান্বিত হয়ে আমার বিরুদ্ধে নানা কথা বলছে’। 


প্রচ