eibela24.com
মঙ্গলবার, ২০, নভেম্বর, ২০১৮
 

 
১০ বছরে রেমিটেন্স বেড়েছে সাড়ে ৪ গুণ
আপডেট: ০৯:০৪ pm ০৪-০১-২০১৮
 
 


দেশে বিগত ১০ বছরে সাড়ে ৪ গুণ রেমিটেন্স বেড়েছে। যা বাংলাদেশকে উন্নত দেশে উন্নীতকরণের পথে একটি মাইলফলক।

বাংলাদেশ ব্যাংক সূত্রে জানা যায়, প্রবাসী বাংলাদেশিরা ২০০৮ থেকে ২০১৭ সালের মধ্যে ৯ হাজার ৭শ’ বিলিয়ন মার্কিন ডলার দেশে পাঠিয়েছে। যা ছিল এর পূর্ববর্তী ১০ বছরের তুলনায় প্রায় ৭ হাজার ৭০০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার বেশি। অনিবাসী বাংলাদেশীরা (নন-রেসিডেন্ট বাংলাদেশ-এনআরবি) ১৯৯৮ থেকে ২০০৭ পর্যন্ত প্রায় ২ হাজার বিলিয়ন ডলার পাঠিয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর আবু হেনা মোহাম্মদ রাজী হাসান বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের বলেন, সরকার ও কেন্দ্রীয় ব্যাংকের বিভিন্ন পদক্ষেপের সুবাদে বিগত কয়েক বছরে রেমিটেন্সের প্রবাহ বেড়েছে। এছাড়া সরকারের দক্ষ জনশক্তি বিদেশে প্রেরণের পদক্ষেপের ফলে প্রবাসী বাংলাদেীর সংখ্যা ক্রমান্বয়ে বাড়ছে। তিনি বলেন, দেশে টাকা পাঠানোর প্রক্রিয়া আগের চেয়ে সহজ হয়েছে। এ ক্ষেত্রে ব্যাংক ও এক্সচেঞ্জ হাউসগুলোকে সব ধরনের সহায়তা দেয়া হচ্ছে। এছাড়া এখন মোবাইল ফিনান্সিয়াল সার্ভিস সুবিধার মাধ্যমে সহজে দেশে টাকা পাঠানো যায়।

ডেপুটি গভর্নর বলেন, ডলারের বিপরীতে মুদ্রার হার ও তেলের দাম হ্রাস এবং বিধিবহির্ভূত প্রক্রিয়ায় দেশে টাকা পাঠানোর প্রবণতার কারণে গত বছরের প্রথম কয়েক মাসে রেমিটেন্স কমে যায়। বাংলাদেশ ব্যাংক এই রেমিটেন্স বৈধ প্রক্রিয়ায় পাঠানোর প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়ার পর প্রবাসীরা বৈধ পথেই টাকা পাঠাতে অধিক স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করছে।

রাজী হাসান বলেন, কেন্দ্রীয় ব্যাংকের অবৈধ পন্থায় রেমিটেন্স প্রেরণ বন্ধের পদক্ষেপের অংশ হিসেবে কিছু মোবাইল ব্যাংকিং অপারেটর নজরদারির মধ্যে রয়েছে। এতে কিছু মোবাইল একাউন্ট চিহ্নিত হয়েছে। যা অবৈধ প্রক্রিয়ায় রেমিটেন্স প্রেরণে ব্যবহৃত হতো।

বাংলাদেশ ব্যাংক সূত্রে জানা যায় যে, চলতি ২০১৭-২০১৮ অর্থবছরের প্রথম ৬ মাসে প্রবাসীরা ৫৬২.৬২ বিলিয়ন ডলার রেমিটেন্স পাঠিয়েছে।

নি এম/