eibela24.com
শুক্রবার, ১৪, ডিসেম্বর, ২০১৮
 

 
বাগেরহাটের সরস্বতী প্রতিমা ভাংচুর
আপডেট: ১২:৩৭ pm ২৪-০১-২০১৮
 
 


বাগেরহাটে সদর উপজেলার বিষ্ণুপুর ইউনিয়নের সাহসপুর গ্রামে মন্ডপের বিদ্যার দেবী সরস্বতী প্রতিমা ভাংচুর করেছে দুই যুবক। সোমবার রাতে উপজেলার বিষ্ণুপুর ইউনিয়নের সাহসপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠের অস্থায়ী পূজা মন্ডপে এই সরস্বতি প্রতিমা ভাংচুরের ঘটনা ঘটে। প্রতিমা ভাংচুরের অভিযোগে স্থানীয় এলাকাবাসী দুই যুবককে ধরে পুলিশে সোপর্দ করেছে। রাতে বাগেরহাট সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শাহাদাত হোসেন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। গ্রেফতারকৃতরা হলো, সদর উপজেলার বিষ্ণুপুর ইউনিয়নের কোড়ামারা গ্রামের রব শেখের ছেলে ছোট শেখ ও একই গ্রামের ওমর শেখ।


বিষ্ণুপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শংকর কুমার চক্রবর্ত্তী বাগেরহাট বলেন, সোমবার রাতে কোড়ামারা গ্রামের পেশায় ভ্যানচালক ছোট শেখ তার ভ্যানে করে সবজি ব্যবসায়ী ওমর শেখকে নিয়ে পার্শবর্তি খালিশপুর গ্রামে যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে তারা সাহসপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সামনের রাস্তায় ভ্যান থামিয়ে রেখে ওই স্কুল মাঠের অস্থায়ী সরস্বতি পূজা মন্ডপে যেয়ে সরস্বতি প্রতিমাটি ভাংচুর করে। পরে তারা দুজন চলে যাওয়ার সময় সরস্বতি দেবীর মাথাটি রাস্তার পাশে একটি সেতুর রেলিং এর উপর রেখে দেয়। এসময় স্থানীয় লোকজন তা দেখতে পেয়ে তাদের ধরে পিটুনী দিয়ে আমাকে খবর দেয়। পরে আমি পুলিশে খবর দেই। এই দুই ব্যক্তি এলাকার দীর্ঘদিনের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করতে এমন ঘৃন্য কাজে লিপ্ত হয়েছে বলে ধারনা তার। তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান তিনি।


বাগেরহাট মডেল থানার ওসি মাহাতাব উদ্দিন বাগেরহাট বলেন, রাতে বাগেরহাট সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শাহাদাত হোসেন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। সরস্বতি পূজা উপলে সাহসপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কর্তৃপ অস্থায়ী মন্ডপ তৈরি করে সোমবার পূজার আয়োজন করে। সেখানে এই দুই যুবক রাতে ফাঁকা মন্ডপে গিয়ে সরস্বতি দেবীর প্রতিমা ভাংচুর করে তার মাথাটি নিয়ে যায়। মাথাটি উদ্ধার করা হয়েছে। এঘটনায় নরেন্দ্রনাথ গাইন বাদি হয়ে বাগেরহাট মডেল থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে।

প্রচ