eibela24.com
সোমবার, ১৯, নভেম্বর, ২০১৮
 

 
সরস্বতী পূজায় নাচতে না দেওয়ায় হামলা, লুটপাট, প্রতিমা ভাংচুর
আপডেট: ০১:২১ pm ২৫-০১-২০১৮
 
 


সরস্বতী পূজায় নাচতে বারণ করায় হিন্দু বাড়িতে হামলা, প্রতিমা ভাংচুর, লুটপাট। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুর উপজেলায় সরস্বতীর প্রতিমা ভাংচুর ও লুটপাটের অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে।

ওসি নিজাম বলেন, পূজার অনুষ্ঠানে ১৫-২০ জনের একদল উচ্ছৃঙ্খল তরুণ নাচতে চেয়েছিল। এতে বাধা দেওয়ায় স্বপনের ছেলে সজিব ও তার ভাই সৌরভকে মারধর করে তারা। তাছাড়া প্রতিমাসহ বাড়িঘরে ভাংচুর চালিয়ে লুটপাট করে বলেও মামলায় অভিযোগ করা হয়েছে।

এ ঘটনায় নয়জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরও ছয়-সাতজনকে আসামি করা হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, মামলার পর ঘটনার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে রাতেই তিনজনকে এবং পরে আরও দুইজনকে আটক করা হয়। অন্যদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।

মঙ্গলবার দুপুরে স্থানীয় সংসদ সদস্য এ বি তাজুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। প্রতিমা ভাংচুরকারীদের গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

বাঞ্ছারামপুর থানার ওসি নিজাম উদ্দিন জানান, উপজেলার পূর্বহাটি গ্রামের স্বপন দাসের বাড়িতে সোমবার রাতে সরস্বতী পূঁজার অনুষ্ঠানে ভাংচুরের এ ঘটনা ঘটে।

আটককৃতরা হলেন - ফরদাবাদ গ্রামের বাক্কি মিয়ার ছেলে আক্তার মিয়া (১৮), আবুল কাসেমের ছেলে সাইফুল ইসলাম (২৩), পূর্বহাটি গ্রামের জমিস উদ্দিনের ছেলে বাদশা মিয়া (১৮), ফিরুজ মিয়ার ছেলে উজ্বল মিয়া (২১) ও শরিফ মিয়া (২২)।

প্রচ